kalerkantho

শনিবার । ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ৪ ডিসেম্বর ২০২১। ২৮ রবিউস সানি ১৪৪৩

ফরিদগঞ্জে ছেলের হাতে প্রাণ গেল মায়ের

চাঁদপুর প্রতিনিধি    

২৭ অক্টোবর, ২০২১ ১৩:৪৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ফরিদগঞ্জে ছেলের হাতে প্রাণ গেল মায়ের

চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জে এবার মানসিক বিকারগ্রস্ত ছেলের হাতে খুন হলেন গর্ভধারিণী মা। আজ বুধবার ভোররাতে ফরিদগঞ্জ পৌরসভার পশ্চিম বড়ালি এলাকায় মর্মান্তিক এই ঘটনা ঘটে। হত্যাকাণ্ডের শিকার  মনোয়ারা বেগম (৬৫) মৃত আবুল হোসেন দেওয়ানের স্ত্রী। এ হত্যাকাণ্ডের কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই ঘটনাস্থলের দুই কিলোমিটার দূর থেকে ঘাতক ছেলে মমিন হোসেন দেওয়ানকে (৩৫) জনতা আটক করে পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছে। 

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানান, বুধবার ভোররাতের কোনো এক সময় নিজেদের বসতঘরে খুন হন মনোয়ারা বেগম। এসময় ধারাল অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে নৃশংসভাবে হত্যা করা হয় তাকে। এই ঘটনার পরপরই মনোয়ারা বেগমের ছেলে মমিন হোসেন দেওয়ান বাড়ি ছেড়ে গাঢাকা দেন। 

নিহতের স্বজন আহসান উল্লাহ দেওয়ান নামে একজন জানান, মমিন মানসিকভাবে বিকারগস্ত। ২০০৩ সালে ঠিক একই কায়দায় আপন জেঠাতো বোনকে কুপিয়ে হত্যা করে মমিন। তারপর দীর্ঘদিন কারাগারে ছিল। কিন্তু আইনের ফাঁকফোকর দিয়ে কারাগার থেকে মুক্ত হয়ে এলাকায় ফেরে। এবার তার হাতে প্রাণ গেলো মায়ের।

মো. মামুন নামে আরেকজন জানান, সকালে পূর্ব বড়ালি এলাকায় উদ্ভ্রান্তের মতো ঘুরছিলেন মমিন হোসেন দেওয়ান। এমন অবস্থায় তাকে এলাকাবাসী আটক করে। পরে থানা পুলিশকে জানানো হয়। একপর্যায়ে পুলিশের উপপরিদর্শক আব্দুল কুদ্দুস একদল পুলিশ নিয়ে এসে মমিনকে জনতার কাছ থেকে থানায় নিয়ে যায়।

ঘটনা সম্পর্কে চাঁদপুর জেলা পুলিশ সুপার মিলন মাহমুদ জানান, মাকে হত্যার দায়ে অভিযুক্ত মমিন হোসেন দেওয়ানকে আটক করা হয়েছে। কী কারণে সে তার মাকে হত্যা করেছে এই বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। 

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, শৈশবের মমিন হোসেন দেওয়ান তার বাবা আবুল হোসেন দেওয়ানকে হারান। তার আরেক ভাই মাসুদ হোসেন দেওয়ান প্রবাসী ছিলেন। গত দু'বছর আগে তিনি অসুস্থ হয়ে মারা যান। মমিন হোসেন দেওয়ান বিয়ে করলেও তার পাগলামির কারণে স্ত্রী তাকে ছেড়ে চলে যান। 

অন্যদিকে, সকালেই পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে নিহত মনোয়ারা বেগমের লাশ উদ্ধার করে। এসময় লাশের সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করে পুলিশ। দুপুরে ময়নাতদন্তের জন্য চাঁদপুর জেনারেল হাসপাতালে লাশটি পাঠানোর কথা রয়েছে। এই নিয়ে ফরিদগঞ্জ থানায় একটি প্রেস ব্রিফিংয়ের আয়োজন করা হয়। 



সাতদিনের সেরা