kalerkantho

শনিবার । ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ৪ ডিসেম্বর ২০২১। ২৮ রবিউস সানি ১৪৪৩

অনশন প্রত্যাহার করে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের অবস্থান কর্মসূচি

শাহজাদপুর ( সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি   

২৫ অক্টোবর, ২০২১ ১৯:০৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



অনশন প্রত্যাহার করে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের অবস্থান কর্মসূচি

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের অভিযুক্ত শিক্ষক ফারহানা ইয়াসমিন বাতেনের স্থায়ী বরখাস্তের দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষর্থীরা তাদের তিনদিনের আমরণ অনশনের পর সোমবার অনশন প্রত্যাহার করে নিয়েছেন। তারা এখন ক্যাম্পাসে অবস্থান কর্মসূচি পালন করছে।

রবিবার দুপুর থেকে রাত আড়াইটা পর্যন্ত রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে আন্দোলনরত ছাত্রদের হাতে অবরুদ্ধ রেজিস্ট্রার মো. সোহরাব আলীসহ ১৪ শিক্ষক ও ২০/২৫ জন কর্মকর্তা কর্মচারী শাহজাদপুর থানার স্ট্রাইকিং ফোর্সের সহযোগিতায় রাত আড়াইটার দিকে বাসায় ফিরে যান।

এদিকে শাহজাদপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহ মো. শামসুজ্জোহা ও শাহজাদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহিদ মাহমুদ খান সোমবার জানান, রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার বিসিক বাসস্ট্যান্ডের শাহাজদপুর মহিলা ডিগ্রি কলেজের অস্থায়ী ক্যাম্পাসে অবরুদ্ধের কথা জানিয়ে ফোন দেন। ফোন পেয়ে শাহজাদপুর থানা স্ট্রাইকিং ফোর্স ঘটনাস্থলে গিয়ে শিক্ষার্থীদের হাতে অবরুদ্ধ শিক্ষক কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের অবরুদ্ধ অবস্থা থেকে মুক্ত করেন। এ সময় তারা নিজ নিজ বাসায় ফিরে যান।

এদিকে সোমবার সকাল থেকে আন্দোলনরত ছাত্ররা বিসিক বাসস্ট্যান্ড এলাকায় অবস্থিত শাহজাদপুর মহিলা ডিগ্রি কলেজের অস্থায়ী বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে অনশন থেকে সরে এসে অবস্থান কর্মসূচি নিয়েছেন।

আন্দোলনরত ছাত্রদের মুখপাত্র আবু জাফর হোসাইন সাংবাদিকদের জানান, সোমবার দুপুরে শাহজাদপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহ মো. শামসুজ্জোহা আমাদের ক্যাম্পাসে এলে বর্তমান পরিস্থিতির অচলাবস্থা নিরসনে স্যারকে অনুরোধ জানাই। তিনি ভিসি মহোদয়ের সাথে আমাদের সাক্ষাতের ব্যবস্থা করে দেবেন বলে আশ্বাস দেন। আমরা সেই সাক্ষাতের অপেক্ষায় রয়েছি।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহ মো. শামসুজ্জোহা জানান, সোমবার দুপুরে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সাথে আমার ক্যাম্পাস সংলগ্ন শাহজাদপুর মহিলা ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষের অফিস রুমে আলোচনা হয়েছে। শিক্ষার্থীরা ন্যায় বিচারের আশ্বাস চেয়ে ভিসি মহোদয়ের সাথে কথা বলতে চায়। আমি বিষয়টি নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার সোহরাব আলীর সাথে কথা বলেছি।

বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার জানান, বিষয়টি নিয়ে আমরা দায়িত্বপ্রাপ্ত ভিসি আব্দুল লতিফ স্যারের সাথে জরুরি বৈঠকে বসব। এ বৈঠকে উদ্ভুত পরিস্থিতি নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হবে।



সাতদিনের সেরা