kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ২ ডিসেম্বর ২০২১। ২৬ রবিউস সানি ১৪৪৩

আ. লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থীর তালিকায় বাবা-ছেলে, দুই ভাই!

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি   

২৪ অক্টোবর, ২০২১ ০১:১৭ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



আ. লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থীর তালিকায় বাবা-ছেলে, দুই ভাই!

লক্ষ্মীপুরের রায়পুর ও রামগঞ্জ উপজেলার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে তৃণমূল আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী তালিকা প্রস্তুতে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। রামগঞ্জের নোয়াগাঁও ও রায়পুরের উত্তর চর আবাবিল ইউনিয়নের তালিকায় দুই ভাইয়ের নাম দেওয়া হয়েছে। 

এ বিষয়ে বঞ্চিত প্রার্থীরা শনিবার (২৩ অক্টোবর) দলীয় সভাপতি শেখ হাসিনার কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন। এর আগে বৃহস্পতিবার জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম ফারুক পিংকু ও সাধারণ সম্পাদক নুর উদ্দিন চৌধুরী নয়ন এমপি তালিকাগুলো কেন্দ্রে জমা দিয়েছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, তৃতীয় ধাপে রায়পুর ও রামগঞ্জের ২০টি ইউনিয়ন এবং লক্ষ্মীপুর পৌরসভার ভোট হবে ২৮ নভেম্বর। এ উপলক্ষে প্রত্যেক ইউনিয়নের প্রার্থী তালিকা করা হয়। এর মধ্যে রামগঞ্জের নোয়াগাঁও ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থী তালিকায় ১ নম্বরে ‘বিতর্কিত’ মো. হোসেন রানা, ২ নম্বরে তাঁর ভাই ইব্রাহিম খলিলসহ পরিবারের ৪ সদস্য, রায়পুরের দক্ষিণ চরবংশীতে ১ নম্বরে আবদুর রশিদ মোল্লা, ২ নম্বরে তাঁর ছেলে মনির হোসেন মোল্লা, উত্তর চর আবাবিলে শহিদ উল্যা, তাঁর ভাই ফরিদ উদ্দিন বাচ্চুসহ পরিবারের ৩ সদস্যের নাম কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে। ওই তালিকায় ‘নিয়ম রক্ষায়’ অন্য কয়েকজনের নামও রয়েছে।

এ প্রসঙ্গে রামগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ ক ম রুহুল আমিন বলেন, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ থেকে আমরা যে তালিকা পেয়েছি, সেটাই জেলাতে পাঠিয়েছে। বিরোধীতার কারণে দলের কিছু নেতাকর্মী অপপ্রচার করছে।

রায়পুরের সোনাপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্বাস হোসেন পাটওয়ারী বলেন, আমার ইউনিয়নের কিসমত চেয়ারম্যান বিতর্কিত। টাকা ছাড়া তিনি কিছুই বুঝেন না। তিনি সরকারি বরাদ্দ বন্টনে বাণিজ্য ও  ছেলে-শ্যালককে দিয়ে মাদক ব্যবসা করছেন। তাঁকে মনোনয়ন না দেওয়ার জন্য কেন্দ্রে লিখিতভাবে জানিয়েছি।

রায়পুর উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাফর উল্যা দুলাল হাওলাদার বলেন, আমি দলের দুঃসময়ে হাল ধরেছি। রাজনৈতিক কারণে হামলা-মামলার শিকার হয়েছি। কিন্তু আমাদের নামের তালিকায় বিতর্কিত শহিদ উল্যা, তার ভাইসহ একই পরিবারের তিনজনকে অন্তর্ভুক্ত করে কেন্দ্রে তালিকা পাঠানো হয়েছে।

জানতে চাইলে লক্ষ্মীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম ফারুক পিংকু বলেন, রায়পুর ও রামগঞ্জের প্রার্থীদের নামের তালিকা জেলা সাধারণ সম্পাদক নয়ন কম্পোজ করে আমার কাছে এনেছেন। আমি তখন চরম আপত্তি জানিয়েছি। পরে তাঁর অনুরোধে আমি সই করেছি। 



সাতদিনের সেরা