kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ৩০ নভেম্বর ২০২১। ২৪ রবিউস সানি ১৪৪৩

বিয়ের প্রলোভনে শারীরিক সম্পর্ক, কনস্টেবলকে ধরিয়ে দেন নারীই

সিরাজগঞ্জ সংবাদদাতা    

২৩ অক্টোবর, ২০২১ ০৯:৩৯ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



বিয়ের প্রলোভনে শারীরিক সম্পর্ক, কনস্টেবলকে ধরিয়ে দেন নারীই

প্রতীকী ছবি।

সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় বিয়ের প্রলোভনে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপনের অভিযোগে পুলিশ কনস্টেবল মাজেদুল ইসলাম বাবুকে (২৬) গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ভুক্তভোগী নারীই পুলিশের কাছে তাঁকে ধরিয়ে দেন। গতকাল শুক্রবার উপজেলার মনিরপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। মাজেদুল বর্তমানে থানা হেফাজতে রয়েছেন।

উল্লাপাড়ার ওসি হুমায়ন কবীর জানান, ওই নারী মাজেদুলের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা করেছেন। বিষয়টির তদন্ত চলছে। মাজেদুল উপজেলার ভদ্রকোল গ্রামের আলতাব হোসেনের ছেলে। তিনি বর্তমানে গুলশান-২ থানায় কর্মরত।

ওই নারী লিখিত অভিযোগে জানান, প্রায় ১২ বছর আগে ভদ্রকোলে তাঁর বিয়ে হয়। বিয়ের পর একটি পুত্রসন্তান হয় তাঁর। এর কয়েক বছর পর প্রতিবেশী মাজেদুল তাঁকে বিয়ের প্রস্তাব দেন। এক পর্যায়ে স্বামীকে তালাক দিয়ে বাবার বাড়ি চলে আসেন তিনি। এরপর ছুটিতে বাড়ি গেলে বিয়ের প্রলোভনে তাঁর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তোলেন মাজেদুল। মাঝে বেশ কিছুদিন গাজীপুরে বাসা ভাড়া করে রাখেন তাঁকে। কিন্তু বিয়ে না করে বাড়ি পাঠিয়ে দেন। গতকাল মাজেদুল আবারও বাড়ি যান। এবার মাজেদুলকে আটকে রেখে পুলিশকে খবর দেন ওই নারী।



সাতদিনের সেরা