kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ৩০ নভেম্বর ২০২১। ২৪ রবিউস সানি ১৪৪৩

চুল কেটে দেওয়া শিক্ষিকার ভাগ্য নির্ধারণ কাল

তাড়াশ-রায়গঞ্জ (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি   

২১ অক্টোবর, ২০২১ ২২:০১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চুল কেটে দেওয়া শিক্ষিকার ভাগ্য নির্ধারণ কাল

রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে ১৪ শিক্ষার্থীর চুল কেটে দেওয়ার আলোচিত ঘটনার তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিয়েছে তদন্ত কমিটি। বৃহস্পতিবার (২১ অক্টোবর) বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার ও দায়িত্বপ্রাপ্ত ভিসি আব্দুল লতিফ এর কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে হস্তান্তর করেন তদন্ত কমিটির প্রধান প্রভাষক লায়লা ফেরদৌস হিমেল।

এ সময় পাঁচ সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটির অন্যান্য সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। তবে অভিযুক্ত শিক্ষিকা  ফারহানা ইয়াসমিনে সাক্ষাতকার পাননি তদন্ত কমিটি।

তদন্ত কমিটির প্রধান লায়লা ফেরদৌস হিমেল বলেন, 'আমরা অভিযুক্ত শিক্ষক ফারহানা ইয়াসমিনের সাক্ষ্য প্রদানের জন্য আজও অপেক্ষায় ছিলাম। কিন্ত তিনি আজও উপস্থিত হননি। আমরা তার সাক্ষ্য ছাড়াই রিপোর্ট জমা দিয়েছি।’

তিনি আরো জানান, অভিযুক্ত শিক্ষক ফারহানা ইয়াসমিনের আবেদনের প্রেক্ষিতে চলতি মাসের ২১ তারিখ পর্যন্ত সময় দেওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছিল।

আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের মূখপাত্র শামীম বলেন, আমরা ফারহানা ইয়াসমিনের চাকরি হতে স্থায়ী অব্যাহতির দাবি জানিয়ে আসছি। তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল হলো। তবে আগামীকাল সিন্ডিকেট মিটিং-এ  সিদ্ধান্তের পর পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণ করবো।'

এদিকে, বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা প্রশাসনিক ভবনের সামনে অবস্থান নেয়। তদন্ত রিপোর্ট দাখিলে গড়িমসিতে ক্ষোভ জানিয়ে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা প্রশাসনিক ভবনের সামনে আবারো অবস্থান নেয়। তবে অবস্থানরত শিক্ষার্থীরা ধারণা করেছিল আজ হয়ত তদন্ত রিপোর্ট দেওয়া হবে না।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার ও দায়িত্বপ্রাপ্ত ভিসি আব্দুল লতিফ, 'তদন্ত প্রতিবেদন পেয়েছি। আগামীকাল (শুক্রবার) সিন্ডিকেটে প্রতিবেদন পর্যালোচন করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।'



সাতদিনের সেরা