kalerkantho

রবিবার । ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ২৮ নভেম্বর ২০২১। ২২ রবিউস সানি ১৪৪৩

ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন

উল্লাপাড়ায় দলীয় মনোনয়নের দৌড়ে বিদ্রোহীরা বিপাকে

উল্লাপাড়া (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি    

২০ অক্টোবর, ২০২১ ১৪:৩৫ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



উল্লাপাড়ায় দলীয় মনোনয়নের দৌড়ে বিদ্রোহীরা বিপাকে

তিন বিদ্রোহী প্রার্থী (বাম থেকে) আব্দুল জলিল, আল আমীন সরকার এবং মো. রাশেদুল হাসান

বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন ঘোষিত ২৮ নভেম্বর তৃতীয় ধাপের নির্বাচনে সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া উপজেলার সবকয়টি ইউনিয়ন পরিষদে স্থানীয় সরকারের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। এ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ১৪টি ইউনিয়ন থেকে আওয়ামী লীগ দলীয় নৌকা মার্কা প্রতীকের মনোনয়নপ্রত্যাশী ৭২ জন প্রার্থী ইতিমধ্যে দলের কাছে আবেদন করেছেন। গতকাল মঙ্গলবার সিরাজগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগ দলীয় বিধি মোতাবেক মনোনয়নপ্রত্যাশীদের নামের তালিকা কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে পাঠানো হয়েছে। এদের মধ্যে ৩  জন রয়েছেন দলীয় বিদ্রোহী প্রার্থী। তারা হলেন- উল্লাপাড়ার পূর্ণিমাগাঁতী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান প্রার্থী আল-আমীন সরকার, এস. এম. রাশেদুল হাসান ও উধুনিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান প্রার্থী আব্দুল জলিল প্রামানিক।

আওয়ামী লীগ দলীয় বিদ্রোহী প্রার্থীদের বিরুদ্ধে অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, ২০১৬ সালের স্থানীয় সরকার নির্বাচনে সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া উপজেলার উধুনিয়া ইউনিয়ন পরিষদের ভোটে আওয়ামী লীগের মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী রেজাউল করিম বাচ্চুর বিপরীতে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা বর্তমান চেয়ারম্যান আব্দুল জলিল প্রামানিক বিদ্রোহী প্রার্থী হয়ে নির্বাচনে অংশ নেন। অপরদিকে, ২০১৭ সালে পুর্ণিমাগাঁতী ইউনিয়ন পরিষদের উপ-নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী রেজাউল করিম তপনের বিপরীতে বর্তমান চেয়ারম্যান আল-আমীন সরকার বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে মোটরসাইকেল প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করেন। একই ইউনিয়নে ২০১৬ সালে আওয়ামী লীগ দলীয় প্রার্থী মরহুম আলহাজ্ব খলিলুর রহমানের প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন স্বতন্ত্র প্রার্থী এস. এম. রাশেদুল হাসান রাশেদ। বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশ নেওয়ায় চেয়ারম্যান প্রার্থী আব্দুল জলিল প্রামানিক, আল আমীন সরকার ও রাশেদুল হাসানকে ইতিপূর্বে আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কার করা হয়।

উল্লাপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম মোস্তফা জানান, ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন উপলক্ষে উপজেলার ১৩টি ইউনিয়ন থেকে ৭২ জন দলীয় মনোনয়নপ্রত্যাশীর নামের তালিকা জেলা আওয়ামী লীগে পাঠানো হয়েছে।

সিরাজগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদ তালুকদার জানান, উপজেলা আওয়ামী লীগের পাঠানো তালিকা মোতাবেক জেলা আওয়ামী লীগ যাচাই-বাছাই করে মন্তব্য কলামে বিদ্রোহী প্রার্থীদের চিহ্নিত করে প্রার্থীদের নামের তালিকা কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগে পাঠিয়েছে।

সিরাজগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি কেএম হোসেন আলী হাসান জানান, কেন্দ্রের নির্দেশে দলীয় মনোনয়নপ্রত্যাশীদের নামের তালিকা পাঠানো হয়েছে। তবে যুদ্ধাপরাধী পরিবারের সদস্য, দলীয় বিদ্রোহী প্রার্থী ও আওয়ামী লীগের দলের সদস্য নন- এমন প্রার্থীদের চিহ্নিত করে তালিকায় তাদের নামের পাশে মন্তব্যের কলামে বিস্তারিত বিবরণসহ পাঠানো হয়েছে। অন্য এক প্রশ্নের জবাবে তিনি আরো জানান, যুদ্ধপরাধী পরিবারের সদস্য ও বিদ্রোহী প্রার্থীদের আগামী নির্বাচনে দল থেকে মনোনয়ন পাওয়ার কোনো সম্ভবনা নেই।        



সাতদিনের সেরা