kalerkantho

রবিবার । ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ২৮ নভেম্বর ২০২১। ২২ রবিউস সানি ১৪৪৩

ধর্ষণচেষ্টা মামলায় অন্যদের ফাঁসাতে গিয়ে নিজেই কারাগারে

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি   

১৮ অক্টোবর, ২০২১ ১৯:০৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ধর্ষণচেষ্টা মামলায় অন্যদের ফাঁসাতে গিয়ে নিজেই কারাগারে

হবিগঞ্জের চুনারুঘাটে মিথ্যা ধর্ষণ চেষ্টা মামলা দিয়ে অন্যদেরকে ফাঁসাতে গিয়ে বাদীকেই কারাগারে যেতে হয়েছে। আজ সোমবার বিকেলে মামলার বাদী আছিয়া খাতুনকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়। এর আগে সোমবার সকালে তাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। আছিয়া খাতুন চুনারুঘাট উপজেলার লাতুরগাঁও গ্রামের আলাউদ্দিনের স্ত্রী।

আদালত সূত্রে জানা যায়, প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে ধর্ষণচেষ্টায় অভিযোগ এনে লাতুরগাঁও গ্রামের আব্দুল গফুর ও বড়আব্দা গ্রামের সৈয়দ সেলিম শাহ নামে দুই ব্যক্তিকে আসামি করে ২০১৯ সালের ২৮ মার্চ মামলা দায়ের করেন আছিয়া  খাতুন। মামলাটি বিচারক চুনারুঘাট উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তাকে তদন্ত পূর্বক প্রতিবেদন দাখিলের আদেশ দেন। তবে মামলার তদন্তে ঘটনার সত্যতা পাওয়া যায়নি মর্মে প্রতিবেদন দাখিল করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা ফাহমিদা ইয়াসমিন। পরবর্তীতে মামলার আসামীরা ঘটনার চ্যালেঞ্জ করে আছিয়া খাতুনের বিরুদ্ধে ১৭ ধারায় মামলা দায়ের করেন। এ মামলাটিও তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের আদেশ দেন বিচারক। ২০২১ সালের ২৯ জুন আদালতে এ মামলার প্রতিবেদন দাখিল করেন তদন্তকারী কর্মকর্তা চুনারুঘাট উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা। পরে আদালত আছিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন। এর পর থেকে আছিয়া খাতুন এলাকা থেকে পালিয়ে যান। সোমবার তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

চুনারুঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আলী আশরাফ আছিয়াকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানোর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।



সাতদিনের সেরা