kalerkantho

শনিবার । ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ৪ ডিসেম্বর ২০২১। ২৮ রবিউস সানি ১৪৪৩

দ্রুতগতির ট্রাকের সঙ্গে অটোভ্যান-মোটরসাইকেলের সংঘর্ষ, ঝরল ৩ প্রাণ

ঈশ্বরদী (পাবনা) প্রতিনিধি    

১৫ অক্টোবর, ২০২১ ১৪:০১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দ্রুতগতির ট্রাকের সঙ্গে অটোভ্যান-মোটরসাইকেলের সংঘর্ষ, ঝরল ৩ প্রাণ

দ্রুত গতিতে চলছে বালুর ট্রাক। ব্রেকহীন বেপারোয়া ব্যাটারিচালিত ভ্যান। আর সেই ভ্যানে রূপপুর পারমাণবিক প্রকল্পে কাজে যোগদানের তাড়া। ফলাফল ট্রাক, ব্যাটারিচালিত ভ্যান এবং মোটরসাইকেলের মধ্যে সংঘর্ষ। এ দুর্ঘটনায় প্রাণ গেলো ব্যাটারিচালিত অটোভ্যানচালক, যাত্রী এবং মোটরসাইকেলচালকের।

নিহতরা হলেন ঈশ্বরদীর সাহাপুর ইউনিয়নের বাঁশেরবাদা গ্রামের বাহাদুর খা'র ছেলে ভ্যানচালক মুনসুর আলী খা (৩৫), একই ইউনিয়নের আওতাপাড়া গ্রামের সোবাহান শাহের ছেলে ভ্যানের যাত্রী সাইফুর শাহ (৫৫) এবং মোটরসাইকেলচালক পাবনা শহরের ছাতিয়ানের মধ্যে পাড়ার আব্দুল মান্নানের ছেলে রূপপুর পারমাণবিক প্রকল্পের শ্রমিক আসিফ হোসেন (৩০)। 

আজ (শুক্রবার) সকাল আনুমানিক সোয়া ৭টার দিকে পাবনা-পাকশী বগামিয়া সড়কের ঈশ্বরদী সাহাপুর ইউনিয়নের আওতাপাড়া এলাকার সাদি বিশ্বাসের শালবাগান সড়কে এই দুর্ঘটনা ঘটে। 

প্রত্যক্ষদর্শী ও থানা সূত্রমতে, ঘটনার সময় পাবনার দিক থেকে ব্যাটারিচালিত অটোভ্যান ও মোটরসাইকেল পাকশীর দিকে যাচ্ছিল। একই সময় পাকশীর দিক থেকে বালুবোঝাই একটি দ্রুতগামী ট্রাক পাবনার দিকে যাচ্ছিল। ঘটনাস্থলে ব্যাটারিচালিত অটোভ্যানটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলে। একই সময় ভ্যানের পেছনে থাকা মোটরসাইকেলচালকও দিশেহারা হয়ে নিয়ন্ত্রণ হারান। ফলে তখন ট্রাকের সঙ্গে ভ্যান ও মোটরসাইকেলের মুখোমুখি ধাক্কা লাগে। এতে ভ্যানচালক মুনসুর খান ও যাত্রী সাইফুল শাহ ঘটনাস্থলেই মারা যান। 

খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের সদস্যরা দ্রুত ঘটনাস্থল থেকে আহত মোটরসাইকেলচালককে উদ্ধার ঈশ্বরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেকে ভর্তি করেন। পরে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। 

ঈশ্বরদী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আসাদুজ্জামান জানান, ঘাতক ট্রাকটিকে আটক করা হয়েছে। তবে পালিয়ে গেছেন ঘাতক বাসচালক। লাশ উদ্ধার করে হাসপাতালে রাখা হয়েছে। সংঘর্ষের স্থান থেকে ট্রাক, ভ্যান ও মোটরসাইকেল উদ্ধার করে থানায় রাখা হয়েছে। 



সাতদিনের সেরা