kalerkantho

শুক্রবার । ৬ কার্তিক ১৪২৮। ২২ অক্টোবর ২০২১। ১৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটে পরীক্ষামূলক ফেরি চলাচল ব্যর্থ

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি   

১৪ অক্টোবর, ২০২১ ১৬:০৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটে পরীক্ষামূলক ফেরি চলাচল ব্যর্থ

পদ্মায় তীব্র স্রোতের কারণে শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌ-রুটে বন্ধের চারদিন পর পরীক্ষামূলকভাবে চালানো হয় ফেরি। পরীক্ষামূলক ফেরি চালিয়ে সফলতা না পাওয়ায় অনিশ্চয়তাই থেকে গেলো শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটে ফেরি চলাচল।

বৃহস্পতিবার বেলা পোনে ১২টার দিকে ফেরি 'কুঞ্জলতা' পাঁচটি ছোটগাড়ী ও ২৯টি মোটরসাইকেল নিয়ে শিমুলিয়া ঘাট থেকে বাংলাবাজার ঘাটের উদ্দেশে পরীক্ষামূলকভাবে ছেড়ে যায়। এ সময় বিআইডব্লিউটিসি, বিআইডব্লিইটএ, সেতু কর্তৃপক্ষ ও পদ্মা সেতুর নিরাপত্তায় থাকা সেনাবাহিনীর সদস্যসহ একটি পর্যবেক্ষক দল ফেরিটিতে ছিল।

পর্যবেক্ষক দলে থাকা বিআইডব্লিউটিসি’র পরিচালক (বাণিজ্য) মো. আশিকুজ্জামান জানান, তিনদিন বন্ধ থাকার পর বিআইডব্লিউটিসি কর্তৃপক্ষ শিমুলিয়া-বাংলাবাজর নৌরুটে আবারো ফেরি চলাচলের উদ্যোগ নেয়। বৃহস্পতিবার ফেরি কুঞ্জলতা নিয়ে পরীক্ষামূলক ফেরি চালিয়ে দেখে পর্যবেক্ষক দল। কিন্তু পদ্মায় এখনও স্রোতের বেগ রয়েছে। যা ফেরি চলাচলের জন্য ঝুকিপূর্ণ। স্রোতের টানে আবারো ফেরি পদ্মা সেতুর পিলারে আঘাত করতে পারে। তাই পর্যবেক্ষক দল মনে করে পদ্মা সেতুর নিচ দিয়ে এখনই ফেরি চলাচল সেতুর নিরাপত্তার জন্য ঠিক নয়। তবে আগামী সপ্তায় আবারো পরীক্ষামূল ফেরি চালিয়ে দেখা হবে ফেরি চলাচল সচল করা যায় কিনা।

পদ্মা নদীতে তীব্র স্রোতের কারণে দুর্ঘটনা এড়াতে দীর্ঘ ৪৭ দিন বন্ধ থাকার পর গত ৪ অক্টোবর শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটে ফেরি চলাচল শুরু হয়। এরপর ছয়দিন এ নৌরুটে ফেরি চলাচল করে। এরপর পুনরায় নদীতে স্রোত বাড়লে গত ১১ অক্টোবর থেকে আবারো ফেরি চলাচল বন্ধ ঘোষণা করে বিআইডাব্লিউটিসি।



সাতদিনের সেরা