kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ৩০ নভেম্বর ২০২১। ২৪ রবিউস সানি ১৪৪৩

উচ্ছেদের পর ফের দখল

ডেমরা (ঢাকা) প্রতিনিধি   

৯ অক্টোবর, ২০২১ ১৯:৫১ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



উচ্ছেদের পর ফের দখল

রাজধানীর ডেমরায় ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের অভিযানে সড়ক ও সেতুর দুই পাশের ফুটপাতে অবৈধ দখলে থাকা দোকানপাট ও অস্থায়ী কাঁচাবাজার উচ্ছেদের একদিন পরই আবারো অবৈধ দখল করে দোকানপাট স্থাপন করেছে দখলদারেরা। প্রশাসনের নাকের ডগায় একটি অসাধু চক্র এসব দোকানপাট বসিয়ে চাঁদাবাজি করছে বলে অভিযোগ রয়েছে।

বুধবার সন্ধ্যার পর কাঁচাবাজারসহ শতাধিক অবৈধ দোকানপাট দখল মুক্ত করতে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের ভ্রাম্যমাণ আদালত অভিযান পরিচালনা করে। ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের নির্বার্হী ম্যাজিস্ট্রেট মো.মনিরুজ্জামেনর নেতৃত্বে ৬৮ নম্বর ওয়ার্ডের হাজীনগর এলাকায় ডিএনডি খালের ওপর পাকা ব্রিজ ও ইসলাম প্লাজা মার্কেট সংলগ্নে এ অভিযান পরিচালিত হয়। এদিকে, ওই অভিযানের পরের দিনই আবারো একইভাবে অবৈধ দখলে চলে আসে ওই এলাকা।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাকর্মী, প্রভাবশালী ও ডেমরা থানা পুলিশের মদদেই এসব অবৈধ দখলযজ্ঞ চলছে এখানে। একইভাবে ডেমরার স্টফ কোয়ার্টার, কোনাপাড়া, ডগাইর, বড়ভাঙ্গা, সারুলিয়া ও বামৈল এলাকাতেও চলছে এসব দখলযজ্ঞ ও চাঁদাবাজি।

এলাকাবাসী জানায়, উচ্ছেদের দুই দিন অতিবাহিত হতে না হতেই একটি প্রভাবশালী মহল সরকারি জায়গা দখল করে কাঁচা বাজারসহ বিভিন্ন দোকানপাট বসিয়ে পূর্বের ন্যায় চাঁদা উত্তোলন করছেন তারা।  এ বিষয়ে স্থানীয় প্রশাসনের কোন নজরদারী নাই বললেই চলে।

এ বিষয়ে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের ৬৮নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মাহমুদুল হাসান পলিন অবৈধ স্থাপনা ও দোকানপাট উচ্ছেদের পরও ফের দখল করে যেসকল লোক দোকান বসিয়ে চাঁদা উত্তোলন করছে তাদের চিহ্নিত করে আইনের আওতার আনান দাবি জানান।

উচ্ছেদ অভিযানে নির্বাহি ম্যাজিস্ট্রেট মো. মনিরুজ্জামান কালের কণ্ঠকে বলেন, দীর্ঘ সময় ধরে কতিপয় অসাধু চক্র সড়কের দুপাশ ও খালের ওপর অবস্থিত ব্রিজের দুপাশে অবৈধ দোকানপাট ও অস্থায়ী কাঁচাবাজার বসিয়ে নানা প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে আসছিল। এখানে প্রতিদিন লাখো মানুষের চলাচল থাকা সত্বেও অবৈধ দখলদারেরা মানুষের স্বাভাবিক চলাচল ব্যাহত করে আসছিল। তাছাড়া দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের ৬৮নম্বর ওয়ার্ডে ইজারাভিত্তিক সারুলিয়া বাজার কাঁচাবাজার রয়েছে। তাই কোনভাবেই এখানে সড়কের পাশে বা সরকারি জায়গা দখল করে অবৈধ দোকানপাট বসতে দেওয়া হবে না।

ওয়ারী বিভাগের উপপুলিশ কমিশনার (ডিসি) শাহ ইফতেখার আহম্মেদ কালের কণ্ঠকে বলেন, ডেমরার হাজী নগরসহ অবৈধ দখলে থাকা সব এলাকায় অবৈধ দখল করে দোকানপাট ও কাঁচাবাজার স্থাপনের বিষয়টি আমার জানা ছিল না। খোঁজ নিয়ে ডেমরা থানা ওসিকে অবহিত করে এসব বিষয়ে প্রয়োজনীয় আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করব।



সাতদিনের সেরা