kalerkantho

সোমবার । ৯ কার্তিক ১৪২৮। ২৫ অক্টোবর ২০২১। ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

নৃশংস! শিশুটিকে দিখণ্ডিত করে ছুঁড়ে ফেলেন শরীফ

হালুয়াঘাট (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি   

২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ২০:৫৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নৃশংস! শিশুটিকে দিখণ্ডিত করে ছুঁড়ে ফেলেন শরীফ

ময়মনসিংহের হালুয়াঘাটে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে কুপিয়ে সুমন (৮) নামে এক শিশুকে হত্যা করা হয়েছে। নিহত শিশু সুমন উপজেলার ধুরাইল ইউনিয়নের পূর্ব ধুরাইল গ্রামের জুয়েলের ছেলে।

মঙ্গলবার (২৮ সেপ্টেম্বর) দুপুরে কোদালিয়া ফেরি ঘাটের কাছে এ হত্যাকাণ্ড ঘটে। এ ঘটনায় শরীফ (২৫) নামে এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ। আটক শরীফ একই গ্রামের শাহ্জাহানের ছেলে।

নিহতের মা মালেছা বেগম জানান, সুমনের সঙ্গে শরীফের ১৫ দিন আগে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে ওই দিনই শরীফ তাদের বাড়িতে দা নিয়ে সুমনকে হত্যা করার জন্য আসে। পরে শরীফের বাবা শাহ্জাহান এ ঘটনায় ক্ষমা চায়।

তিনি বলেন, আজ দুপুরে সুমনকে বিস্কুট খাওয়ানোর লোভ দেখিয়ে বাড়ি থেকে ডেকে এনে দা দিয়ে কুপিয়ে শরীর থেকে মাথা আলাদা করে নদীর পাড়ে ফেলে যায়। আমি এ ঘটনার সুষ্ঠ বিচার চাই।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী কোদালিয়া ফেরি ঘাটের ইজারাদার হেলাল উদ্দিন ভূঁইয়া কালের কণ্ঠকে বলেন, আমি নৌকা নিয়ে নদীর ওই পাড়ে ছিলাম। হঠাৎ দেখি নদীর পাড়ে এক শিশুকে দা দিয়ে কোপাচ্ছে শরীফ। আমিসহ সঙ্গে থাকা লোকজন চিৎকার করলে শরীফ ছেলেটিকে নদীর পাড়ে ছুড়ে মারে। পড়ে আবার সে নিজেই দ্বি-খন্ডিত মাথা শরীরের সঙ্গে জোড়া দিয়ে চলে যায়।

হালুয়াঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহিনুজ্জামান খান বলেন, হত্যাকাণ্ডে জড়িত শরীফ আটক করা হয়েছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজে পাঠানোর পক্রিয়া চলছে। হালুয়াঘাট থানায় একটি হত্যা মামলা পক্রিয়াধীন রয়েছে।



সাতদিনের সেরা