kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৫ কার্তিক ১৪২৮। ২১ অক্টোবর ২০২১। ১৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

নোবিপ্রবিতে বিশ্ব ফার্মাসিস্ট দিবস পালিত

নোবিপ্রবি সংবাদদাতা    

২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ২৩:৫৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নোবিপ্রবিতে বিশ্ব ফার্মাসিস্ট দিবস পালিত

'ফার্মেসি সব সময় আপনার স্বাস্থ্যের জন্য বিশ্বস্ত' এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (নোবিপ্রবি) বিশ্ব ফার্মাসিস্ট দিবস পালিত হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) বিকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মেসি বিভাগের আয়োজনে অনলাইন প্লাটফর্ম জুম অ্যাপে অনুষ্ঠিত হয় পাওয়ার পয়েন্ট প্রেজেন্টেশন কম্পিটিশন। এতে বিভাগটির বিভিন্ন ব্যাচের শিক্ষার্থীরা অংশ নেয়।

পরে সন্ধ্যায় বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মো. সেলিম হোসেনের সভাপতিত্বে এবং বিভাগের প্রভাষক তৌহিদুল আমিন রাফি ও শিক্ষার্থী সাবরিনা চৌধুরীর সঞ্চালনায় একই প্লাটফর্মে এক আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিভাগটির সহকারী অধ্যাপক ড. ফাহদ হুসাইন।

প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে সভায় বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. দিদার-উল-আলম। এছাড়াও বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. আব্দুল বাকী, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো. ফারুক উদ্দিন, ফার্মেসি বিভাগের শিক্ষক অধ্যাপক ড. মো. শফিকুল ইসলাম এবং অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ারুল বাশার।

প্রধান অতিথির বক্তৃতায় উপাচার্য বলেন, 'ফার্মেসি বিভাগ নোবিপ্রবির পুরাতন একটি বিভাগ। দেশের স্বাস্থ্যসেবার মানোন্নয়নে বিভাগটির প্রাক্তন শিক্ষার্থীরা কার্যকর ভূমিকা রাখছে।'

সভায় কি নোট স্পিকার হিসেবে উপস্থিত থেকে ফার্মেসি পেশার চ্যালেঞ্জ এবং সুযোগ-সুবিধা নিয়ে বিশদ আলোচনা করেন যুক্তরাষ্ট্রের ইউনিভার্সিটি অব চার্লেস্টনের অধ্যাপক ড. ওমর ফারুক খান, ফার্মা মার্কেটিং নিয়ে আলোচনা করেন রচে বাংলাদেশ লিমিটেডের বিজনেস ডেভেলপমেন্ট প্রধান মোহাম্মদ ওয়াহিদুজ্জামান এবং কমিউনিটি ফার্মাসিস্টের ভূমিকার বিষয়ে আলোচনা করেন কানাডার টরোন্টোর ভেনিস ফার্মাসির পরিচালক মো. ফেরদৌস আমিন। সভায় বক্তারা দেশের সরকারি হাসপাতালগুলোতে গ্রাজুয়েট ফার্মাসিস্ট নিয়োগের আহ্বান জানান।

সবশেষে পাওয়ার পয়েন্ট প্রেজেন্টেশন কম্পিটিশনের বিজয়ীদের নাম ঘোষণার মধ্য দিয়ে শেষ হয় অনুষ্ঠানটি। প্রেজেন্টেশন কম্পিটিশনে প্রথম হয়েছেন- বিভাগটির ১২তম ব্যাচের শিক্ষার্থী সৈয়দ মুসতাহিম সিয়াম, সম্মিলিতভাবে দ্বিতীয় হয়েছেন ১৫তম ব্যাচের শিক্ষার্থী চয়ন কুরী ও ১৩তম ব্যাচের শিক্ষার্থী ফাতেমা-তুজ-জহুরা এবং তৃতীয় হয়েছেন ১৩তম ব্যাচের শিক্ষার্থী সাবরিনা চৌধুরী। বিভাগটির সব শিক্ষক ও বিভিন্ন ব্যাচের শিক্ষার্থীরা অনুষ্ঠানে স্বতঃস্ফূর্তভাবে অংশ নেয়।



সাতদিনের সেরা