kalerkantho

রবিবার । ১ কার্তিক ১৪২৮। ১৭ অক্টোবর ২০২১। ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

সিঁদ কেটে ঘরে ঢুকেছিল 'ধর্ষকরা'!

অনলাইন ডেস্ক   

২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ২১:৫৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সিঁদ কেটে ঘরে ঢুকেছিল 'ধর্ষকরা'!

প্রতীকী ছবি।

টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর উপজেলায় সিঁধ কেটে ঘরে ঢুকে এক গৃহবধূকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। মঙ্গলবার (২১ সেপ্টেম্বর) রাতে উপজেলার চরাঞ্চলের রুলীপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) রাতে ধর্ষণের শিকার ওই নারী বাদি হয়ে মামলা দায়ের করেন। পরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে কবির সরকার নামে এক আসামিকে গ্রেপ্তার করে।

শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) দুপুরে তাকে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। গ্রেপ্তারকৃত কবির রুলীপাড়া গ্রামের শহীদ জামানের ছেলে।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, ধর্ষণের শিকার ওই গৃহবধূর স্বামী ব্যবসায়িক কাজে ঠাকুরগাঁও চলে যান। মঙ্গলবার তার শিশুসন্তান নিয়ে ঘুমিয়ে পড়েন ওই নারী। গভীর রাতে ঘরের মধ্যে পুরুষ মানুষ দেখতে পেয়ে চিৎকার শুরু করেন তিনি। এ সময় তার চিৎকার শুনে সন্তানের গলায় ছুরি ধরে রুলীপাড়া গ্রামের শহিদ জামানের ছেলে কবির সরকার (২৬) ও হাবেস ঘোষের ছেলে শাহাদত (৩০)। পরে তারা সন্তানকে জিম্মি করে ওই নারীকে ধর্ষণ করে। পরে অজ্ঞান অবস্থায় তাকে রেখে পালিয়ে যান অভিযুক্তরা।

গাবসারা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মনিরুজ্জামান মনির বলেন, ঘটনা শুনেছি। অভিযুক্ত কবির একাধিক বিয়ে করেছে। এর আগেও এ ধরনের ঘটনা ঘটিয়েছে কবির।

ভূঞাপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মাহমুদুল হাসান বলেন, এ ঘটনায় কবির নামের একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অপর আসামিকে গ্রেপ্তার করতে অভিযান চলছে। শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) ওই গৃহবধূর মেডিক্যাল পরীক্ষার জন্য টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। 



সাতদিনের সেরা