kalerkantho

বুধবার । ৪ কার্তিক ১৪২৮। ২০ অক্টোবর ২০২১। ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

শিশুকে যৌন নির্যাতনের মামলায় মাদরাসাশিক্ষক গ্রেপ্তার

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, মানিকগঞ্জ   

২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ১৮:৪২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শিশুকে যৌন নির্যাতনের মামলায় মাদরাসাশিক্ষক গ্রেপ্তার

মানিকগঞ্জের সিঙ্গাইরে এক শিশু শিক্ষার্থীকে বলাৎকারের অভিযোগে মাদরাসাশিক্ষক রমজান আলীকে (২৭) গ্রেপ্তার করেছে থানা পুলিশ। বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) সকাল ৬টার দিকে নিজ বাড়ি থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। মো. রমজান আলী উপজেলার আলীনগর মোহাম্মাদিয়া মাদরাসাশিক্ষক ও পাবনার জেলার বেড়া থানার নতুন মানিকনগর গ্রামের আবুল কালামের ছেলে।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, সম্প্রতি উপজেলার আলীনগর-ওয়াইজনগর মোহাম্মদিয়া মাদরাসার মক্তব বিভাগের এক শিশু শিক্ষার্থীকে বলাৎকার করেন শিক্ষক রমজান আলী। এ ঘটনায় গত ২১ সেপ্টেম্বর রাতে রমজান আলীসহ মাদরাসার ৪ শিক্ষকের নামে থানায় মামলা করেন বলাৎকারের শিকার শিশুটির দাদি। ঘটনার পর রমজান আলী মাদরাসা থেকে পালিয়ে যান। বৃহস্পতিবার সকালে পাবনার জেলার বেড়া উপজেলার নতুন মানিকনগর গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আব্দুল হালিমসহ সঙ্গীয় ফোর্স। এর আগে রমজান আলীকে পালিয়ে যেতে সহযোগিতা করার অভিযোগে গত মঙ্গলবার দিবাগত রাতে মাদরাসার প্রিন্সিপাল সাইফুল ইসলাম, শিক্ষক মো. আব্দুল আওয়াল ও মো. সাইফুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করে জেলহাজতে পাঠায় পুলিশ। 

সিঙ্গাইর থানার পুলিশ পরিদর্শক (ওসি) শফিকুল ইসলাম মোল্লা বলেন, ‘পুলিশ সুপার গোলাম আজাদ খানের স্যারের দিকনির্দেশনায় শিশু বলাৎকার মামলার প্রধান আসামি রমজান আলীসহ ৪ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়। এর মধ্যে গ্রেপ্তারকৃত তিনজনকে গত বুধবার আদালেতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়। প্রধান আসামি রমজান আলীকে আগামীকাল রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠনো হবে।’



সাতদিনের সেরা