kalerkantho

রবিবার । ১ কার্তিক ১৪২৮। ১৭ অক্টোবর ২০২১। ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

মায়ের মৃত্যু: আসামি বাবা, স্বাক্ষী মেয়ে

ফুলপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি   

২২ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ২২:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মায়ের মৃত্যু: আসামি বাবা, স্বাক্ষী মেয়ে

ময়মনসিংহ জেলার ফুলপুর উপজেলার রুপসী ইউনিয়নের বিহারিঙ্গা গ্রামে স্ত্রীকে যৌতুকের জন্য পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এই ঘটনায় নিহতের মা রশীদা বেগম আজ বুধবার ফুলপুর থানায় নারী ও শিশু আইনে হত্যা মামলা দায়ের করলে দেলোয়ারকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠানোর ব্যবস্থা করে পুলিশ।

নিহত রিতা আক্তার নওগাঁ জেলার বদলগাছি থানার পলিশা গ্রামের ইব্রাহীম খানের মেয়ে। আর তার স্বামী বিহারিঙ্গা গ্রামের বীরমুক্তিযোদ্ধা মৃত সাইফুল ইসলামের সন্তান। জানা যায়, দেলোয়ার গত সোমবার গভীর রাতে স্ত্রী রিতা আক্তারকে (২৭) ব্যাপক মারধর করেন। একপর্যায়ে স্ত্রী অচেতন অবস্থায় পড়ে থাকলে স্বামী নিজেই চিৎকার করে স্থানীয়দের জানান, তার স্ত্রী স্টোক করে জ্ঞান হারান। কিছুক্ষণ পরেই মারা যান রিতা আক্তার। পরে গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে স্ত্রী রিতা আক্তারের পরিবারকে দেলোয়ার জানান, রিতা হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মারা গেছেন। মঙ্গলবার দুপুরে তাকে দাফন করা হবে।

এই ঘটনার খবর পেয়ে ফুলপুর থানার পুলিশ ঘটনাস্থালে যায়। রিতা আক্তারের কাফনে মোড়ানো লাশ নারী পুলিশ দিয়ে পরীক্ষা করে। এসময় পিঠে ও কপালে মারাত্মক জখমের চিহ্ন দেখতে পায়। নিহতের ছোট মেয়ে আনিকা (৬) বলেন, ‘রাতে বাবা ও মায়ের ঝগড়া হয়। মাকে ভীষণ মারপিট করেন বাবা।’ এই ঘটনায় অভিযুক্তের বিচার দাবি করে রিতার পরিবার।

ফুলপুর থানার ওসি আব্দুল্লাহ আলমামুন জানান, যৌতুকের জন্য এ হত্যাকাণ্ড বলে ধারণা করা হয়েছে। নিহতের শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। বাকি আসামিদেরকে দ্রুত সময়ে গ্রেপ্তার করা হবে। লাশ ময়নাতদন্ত শেষে আজ পরিবারের কাছে পাঠানো হয়েছে।



সাতদিনের সেরা