kalerkantho

সোমবার । ২ কার্তিক ১৪২৮। ১৮ অক্টোবর ২০২১। ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

কিশোর বলাৎকার! গ্রেপ্তার ৩, পলাতক আরো ৩ আসামি

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, মানিকগঞ্জ   

২২ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ১৮:৫৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কিশোর বলাৎকার! গ্রেপ্তার ৩, পলাতক আরো ৩ আসামি

গ্রেপ্তারকৃত দুই আসামি।

মানিকগঞ্জের শিবালয়ে অসহায় এক প্রতিবন্ধী কিশোরকে (১৪) বলৎকারের অভিযোগে তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- উপজেলার তেওতা এলাকার তেওতা বাছেট গ্রামের মৃত মনছুর শেখের ছেলে হবিবর শেখ (৬৪), বাবুর বাড়ি তেওতার মৃত নিরঞ্জন সরকারের ছেলে নীল কমল সরকার (৩৯) এবং ভোলা ফকিরের ছেলে সাইফুল ইসলাম (৪৫)। 

বুধবার (২২ সেপ্টেম্বর) দুপুরে শিবালয় থানার উপপরিদর্শক (এসআই) জাহাঙ্গীর আলম খন্দকার বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন। গ্রেপ্তারকৃত হবিবর ও নীল কমলকে সাতদিনের রিমান্ড আবেদন করে কোর্ট হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ঘটনায় আরো তিনজনকে আসামি করা হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, ভুক্তভোগী ওই কিশোর 'বুদ্ধি প্রতিবন্ধী'। ওই কিশোর রাতের বেলায় তেওতা বাজারে ঘুরে বেড়ায়। এই সুযোগে কয়েক মাস যাবৎ বিভিন্ন সময় তেওতা জমিদার বাড়ির পরিত্যক্ত ভবন, যমুনা নদীর পাড়সহ কয়েকটি স্থানে টাকার লোভ দেখিয়ে হবিবর, নীল কমল, সাইফুল, কোহিনুর মিয়া, মোশাররফ হোসেন এবং স্বপ্ন মিয়া ওই কিশোরকে বলৎকার করে।

শনিবার রাতে ওই চক্রটি আবার পালাক্রমে ওই কিশোরকে বলৎকার করে। বিষয়টি মঙ্গলবার (২২ সেপ্টেম্বর) রাতে স্থানীয়দের কাছে জানায় কিশোর। পরে স্থানীয় চেয়ারম্যান ও এলাকাবাসী বিষয়টি থানায় অবগত করেন।

শিবালয় থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ফিরোজ কবির কালের কণ্ঠকে বলেন, ওই কিশোরের বলাৎকারের বিষয়টি অবগত হওয়ার পরই তাৎক্ষণিক অভিযান পরিচালনা করে তিন আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। পলাতক বাকি আসামিদের আটক করতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। ভুক্তভোগীর মা মানসিক অসুস্থ এবং নিকটাত্মীয় না থাকায় পুলিশ বাদী হয়ে মামলা করেছেন। 

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ওসি (তদন্ত) আশিষ কুমার সান্যাল বলেন, ভিকটিমকে ২২ ধারায়  জবানবন্দির জন্য বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার ভুক্তভোগীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য পাঠানো হবে।



সাতদিনের সেরা