kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ২ ডিসেম্বর ২০২১। ২৬ রবিউস সানি ১৪৪৩

কলেজ খুলতেই ক্যাম্পাসে অস্ত্রের মহড়া! ছাত্রদলের দাবি 'এরা ছাত্রলীগ'

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, গাজীপুর   

১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ২১:২২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কলেজ খুলতেই ক্যাম্পাসে অস্ত্রের মহড়া! ছাত্রদলের দাবি 'এরা ছাত্রলীগ'

গাজীপুরের শ্রীপুর মুক্তিযোদ্ধা রহমত আলী সরকারি কলেজ ক্যাম্পাসে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে মহড়া দিয়েছে একদল তরুণ। এতে সাধারণ শিক্ষার্থীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। আজ শনিবার সকালে ঘটনাটি ঘটেছে বলে জানা গেছে।

তবে ওই কলেজ শাখা ছাত্রদল নেতাদের অভিযোগ, মহড়ায় অংশ নেওয়া সবাই ছাত্রলীগ কর্মী। ওই সময় ছাত্রদল নেতাকর্মীদের ধাওয়া করে ক্যাম্পাস ছাড়া করে ছাত্রলীগ। তাদের পাঁচজন কর্মীকেও মারধর করা হয়েছে বলে দাবি দলটির নেতাকর্মীদের।এদিকে, কলেজ ক্যাম্পাসে দেশীয় অস্ত্র হাতে মহড়ার ঘটনাটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে।

শ্রীপুর মুক্তিযোদ্ধা রহমত আলী সরকারি কলেজ শাখা ছাত্রদলের আহ্বায়ক ইমরান মৃধা জানান, করোনা মহামারির কারণে দীর্ঘদিন পর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা হলে আজ তাঁরা কলেজে যান। সকাল ১০টার দিকে তিনিসহ ১৫ থেকে ১৬ জন নেতাকর্মী একসঙ্গে ছিলেন। ওই সময় ছাত্রলীগ নেতা সাইফ হাসানের নেতৃত্বে প্রায় ২০ জন নেতাকর্মী তাঁদের ওপর অতর্কিত হামলা চালায়। এতে ছাত্রদলের পাঁচজন নেতাকর্মী আহত হন। আহতদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

অভিযোগ অস্বীকার করে সাইফ হাসান কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘ছাত্রদলের প্রায় ৩০ জন নেতাকর্মী ক্যাম্পাসে সরকারবিরোধী নানা স্লোগান দিচ্ছিল। এতে আমরা বাঁধা দেই। ওই সময় কোন হামলার ঘটনা ঘটেনি।

জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল আলম রবিন বলেন, 'দেশীয় অস্ত্র নিয়ে ক্যাম্পাসে যারা মহড়া দিয়েছে, তারা ছাত্রলীগের কোনো শাখারই সদস্য নয়।'

শ্রীপুর মুক্তিযোদ্ধা রহমত আলী সরকারি কলেজের শিক্ষক আবদুল হান্নান জানান, সকাল সাড়ে ১০টার দিকে কলেজ ক্যাম্পাসে মহড়া দেখে তাৎক্ষণিক পুলিশকে জানানো হয়। তিনি বলেন, ‘মহড়ায় অংশ নেওয়া সবাইকে চিনতে পারিনি। তবে মহড়ায় ছাত্রলীগের কর্মীরা ছিল।’

শ্রীপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মাহফুজ ইমতিয়াজ ভূঁইয়া বলেন, ‘খবর পেয়ে পুলিশ সেখানে পৌঁছে মহড়ার কোনো বিষয় দেখিনি। তবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মহড়ার ছবি দেখেছি। হামলার ঘটনায় থানায় কেউ অভিযোগ করেনি।’



সাতদিনের সেরা