kalerkantho

শনিবার । ৩১ আশ্বিন ১৪২৮। ১৬ অক্টোবর ২০২১। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

কক্সবাজার সৈকতে করণীয় ও সতর্কতা বিষয়ে ১০ দিনব্যাপী ক্যাম্পেইনের উদ্বোধন

বিশেষ প্রতিনিধি, কক্সবাজার    

১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ১৫:২৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কক্সবাজার সৈকতে করণীয় ও সতর্কতা বিষয়ে ১০ দিনব্যাপী ক্যাম্পেইনের উদ্বোধন

সতর্কতাই নিরাপত্তার পূর্বশর্ত- এই স্লোগানে সমুদ্রের পানিতে নামার আগে করণীয় ও সতর্কতার ব্যাপারে ১০ দিনব্যাপী ক্যাম্পেইন শুরু করেছে কক্সবাজার জেলা প্রশাসন। এখন থেকে পর্যটকরা সমুদ্রস্নান কিংবা পানিতে নামার আগে প্রশাসনের দেওয়া নির্দেশনা ও সময়সূচি মেনে সমুদ্রসৈকতে নামতে হবে। আজ শুক্রবার (১৭ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ১০টায় সৈকতের সুগন্ধা পয়েন্টে ১০ দিনব্যাপী ক্যাম্পেইনের উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক মো. মামুনুর রশীদ। 

জেলা প্রশাসক মো. মামুনুর রশীদ বলেন, এমন সচেতনতা সতর্কবার্তা এই ১০ দিনব্যাপী আমরা প্রচার করতে চাই। পর্যটক যারা আসবেন তাদের তো জানা নেই যে এখানে লাইফগার্ড আছে, এখানে  সিকিউরিটির ব্যবস্থা আছে, কোন চিহ্ন দিয়ে কী অর্থ প্রকাশ পায়, লাল পতাকার অর্থ কী ইত্যাদি।

আত্মীয়-স্বজন, পরিবার-পরিজন নিয়ে যারা কক্সবাজার সমুদ্রসৈকতে বেড়াতে আসেন, তারা অনেক সময় সিগন্যালগুলো খেয়াল করতে পারে না। যারা বিচকর্মী তারা সার্বক্ষণিক সজাগ রয়েছেন।

জেলা প্রশাসক বলেন, আমরা আজ থেকে শুরু করে আগামী দশ দিন পর্যন্ত কলাতলী, সুগন্ধা এবং লাবণী বিশেষ করে এই তিনটা পয়েন্টে আমরা এ রকম প্রচার অভিযান করব। যারা দর্শক, যারা পর্যটক, যারা বিশিষ্ট লোকজন এখানে বেড়াতে আসবেন, তাদের কাছে আমাদের বিনয়ের সঙ্গে অনুরোধ থাকবে, তারা যেন এই প্রচার অভিযানমূলক কার্যক্রমগুলোকে একটু সহযোগিতা করেন, তাদের মূল্যবান সময় ব্যয় করে একটু করে আমাদের কথাগুলো শোনেন, আমাদের যারা ট্রেনার হিসেবে কাজ করবেন, তাদের কথাগুলো একটু শোনেন এবং তাদেরকে সহযোগিতা করেন।

তিনি আরো বলেন, বিপুল আনন্দময় ও অপার সম্ভাবনাময় এবং সৌন্দর্যের লীলাভূমি হিসেবে এই সমুদ্রসৈকত সারা বিশ্বে খ্যাত। তার যে নৈসর্গিক চেতনা, সেই চেতনাকে সারা বিশ্বে আমরা ছড়িয়ে দিতে পারব। সারা বিশ্বের মধ্যে কক্সবাজার একটা অনন্য স্থান হিসেবে আমাদের পর্যটন শিল্পকে আরো বিকশিত করবে।

এ সময় অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো. আবু সুফিয়ান, জেলা প্রশাসক (সার্বিক) জাহিদ ইকবাল, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট (পর্যটন সেল) সৈয়দ মুরাদ ইসলাম, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জোবায়ের হাবিবসহ পর্যটক সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা-কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।



সাতদিনের সেরা