kalerkantho

মঙ্গলবার । ৩ কার্তিক ১৪২৮। ১৯ অক্টোবর ২০২১। ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

পাইকগাছায় ডাকাতির প্রস্তুতিকালে গ্রেপ্তার ১

নিজস্ব প্রতিবেদক    

১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ১৪:৪৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পাইকগাছায় ডাকাতির প্রস্তুতিকালে গ্রেপ্তার ১

খুলনার পাইকগাছায় ডাকাতির প্রস্তুতিকালে এক ডাকাত সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে দাবি করেছে পুলিশ। গতকাল শুক্রবার (১৬ সেপ্টেম্বর) রাত সোয়া ১১টার দিকে উপজেলার নাছিরপুর এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে পুলিশ জানিয়েছে।

গ্রেপ্তারের পর মিলন বেগ ওরফে মিলন গোলদার (৪১) নামের ওই ব্যক্তিকে আদালতে পাঠানো হয়েছে। তার বিরুদ্ধে অস্ত্র, মাদক, ডাকাতিসহ ছয়টি মামলা রয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

আজ শুক্রবার খুলনার পাইকগাছা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এজাজ শফীর ভাষ্য মতে, পাইকগাছা কপিলমুনির কাশিমবাজার এলাকায় টহলরত পুলিশ গোপন সূত্রে জানতে পারে পার্শ্ববর্তী নাছিরপুর এলাকার জনৈক মো. আমির আলী শেখের সুপারি বাগানে ১২-১৩ জনের একদল ডাকাত ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছে। সংবাদটি পাওয়ার পরপরই রাত সোয়া ১১টার দিকে সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে তিনি ওই স্থানে অভিযান চালান। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ডাকাত দলের সদস্যরা দৌড়ে পালিয়ে যায়। পুলিশ তাদের পিছু নিয়ে ডাকাত মিলন বেগ ওরফে মিলন গোলদারকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়। এ সময় অন্ধকারে পড়ে গিয়ে কিছুটা আঘাত পান তিনি।

ওসি এজাজ শফী বলেন, পুলিশের ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদে মিলন বেগ জানিয়েছেন সুপারী বাগানে বসে তারা কুখ্যাত ডাকাত সর্দার চঞ্চল কাজীর (পলাতক) নেতৃত্বে ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। ওই রাতে কয়েকটি বাড়িতে ডাকাতির পরিকল্পনা ছিল তাদের। প্রাথমিক চিকিৎসা ও জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাকে আদালতে পাঠানো হয়। অভিযান পরিচালনাকারী এসআই মুহাম্মদ আব্দুল আলীম এ ঘটনায় বাদী হয়ে মামলা করেছেন।

পুলিশ জানায়, গ্রেপ্তার মিলন বেগ ওরফে মিলন গোলদার নড়াইল জেলা কালিয়া থানার মৃত উকিল বেগের ছেলে। তার বিরুদ্ধে নড়াইল জেলার সদর ও কালিয়া থানায় অস্ত্র, মাদক, ডাকাতিসহ ছয়টি মামলা রয়েছে। পুরো ডাকাত দলটিকে ধরতে অভিযান চলছে।

প্রসঙ্গত, পাইকগাছা উপজেলায় এক সময় ডাকাতি ছিল নিত্যদিনের ঘটনা। বর্তমানে পুলিশের একের পর সাঁড়াশি অভিযানের কারণে ডাকাতি প্রায় শূন্যের কোটায় নেমে এসেছে। উন্নতি হয়েছে সামগ্রিক আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতির।



সাতদিনের সেরা