kalerkantho

সোমবার । ৯ কার্তিক ১৪২৮। ২৫ অক্টোবর ২০২১। ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

গাইবান্ধায় ওড়াঁও জনগোষ্ঠীর ‘কারাম উৎসব’

গাইবান্ধা প্রতিনিধি   

১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ২০:০৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গাইবান্ধায় ওড়াঁও জনগোষ্ঠীর ‘কারাম উৎসব’

গাইবান্ধায় বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে কারাম উৎসব পালিত হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার সকাল থেকে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার শাখাহার ইউনিয়নের পশ্চিম দইহারা গ্রামে নানা আয়োজন এই উৎসব পালন করে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী ওড়াঁও সম্প্রদায়। এ উপলক্ষে পাশের নওগাঁ, নাটোর, দিনাজপুর, চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলাসহ বিভিন্ন এলাকা থেকে আসা ওড়াঁও জনগোষ্ঠীর বিভিন্ন সাংস্কৃতিক সংগঠন উৎসবে যোগ দিয়ে তাদের নিজেদের ভাষা সংস্কৃতি আর ঐতিহ্য তুলে ধরে।

উদ্বোধনী পর্বে কারাম উৎসব উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক সুরেন তিগ্যার সভাপতিত্বে আলোচনা অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন শাখাহার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তাহাজুল ইসলাম, ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী নেতা গৌর চন্দ্র পাহাড়ি, মিলন তিগ্যা, জিসাই তিগ্যা, সখী রানী পাহাড়ি, আদিবাসী আবিনা টপ্য, সরলা মিনজি, লিটন তিগ্যা প্রমুখ।

ওড়াঁও সম্প্রদায় সমতলের ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীদের মধ্যে দ্বিতীয় বৃহত্তম জনগোষ্ঠী। ওড়াঁও সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব কারাম পূজা। বংশপরম্পরায় যুগ যুগ ধরে প্রতি বছর উত্তরের সমতল ভূমির ওড়াঁও সম্প্রদায় এই কারাম উৎসব পালন করলেও গাইবান্ধায় দ্বিতীয় বারের মতো এই উৎসব পালন করা হল।

কারাম উৎসব উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক সুরেন তিগ্যা বলেন, কারাম একটি গাছের নাম। ওড়াঁও জাতিগোষ্ঠীর মানুষের কাছে এটি একটি পবিত্র গাছ। মঙ্গলেরও প্রতীক। প্রতি বছর এ উৎসবকে ঘিরে মুখরিত হয় গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার ওড়াঁও সম্প্রদায়ের বসবাসরত এলাকাগুলো। পূজার সময় আদিবাসীদের দুই সহোদর ধর্মা ও কর্মার জীবনী তুলে ধরেন তাদের ধর্মগুরু। আদিবাসী বিশ্বাস করে ধর্ম পালন করায় ধর্মা রক্ষা পান সব বিপদের হাত থেকে। আর কর্মা ধর্ম পালন না করায় তার ক্ষতি হয়। উৎসবে ওড়াঁও সম্প্রদায়ের লোকজন উপবাস করে কারাম গাছের ডাল কেটে আনেন। কারাম ডাল কেটে অস্থায়ী মন্ডপে পুঁতে রেখে পূজা-অর্চনা আর নাচ-গান ও গল্প  বলার মধ্য দিয়ে এই উৎসব শুরু হয়। এ সময় পুরো এলাকা হয়ে ওঠে ওড়াঁওসহ সব সম্প্রদায়ের মিলনমেলা। পূজা শেষে কারাম ডাল উঠিয়ে গ্রামের তরুণ-তরুণীরাসহ সব বয়সের নারী-পুরুষ নেচে-গেয়ে গ্রামের বাড়ি বাড়ি ঘুরে পুকুরের জলে বিসর্জন দেন।



সাতদিনের সেরা