kalerkantho

সোমবার । ৯ কার্তিক ১৪২৮। ২৫ অক্টোবর ২০২১। ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

হত্যা করে বিদেশ, ১৭ বছর পর ফিরেই ধরা!

ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি   

১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ১৯:০১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



হত্যা করে বিদেশ, ১৭ বছর পর ফিরেই ধরা!

প্রতীকী ছবি।

ঢাকার ধামরাইয়ে ১৭ বছর আগে একজনকে হত্যা করে সৌদি আরব পাড়ি দিয়েছিলেন ফিরোজ আলম নামের এক আসামি। তিনি কিছুদিন আগে দেশে আসেন। বুধবার রাতে তাকে আটক করে ধামরাই থানা পুলিশ। 

বৃহস্পতিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) তাকে আদালতে প্রেরণ করে। আদালত তাকে জেলহাজাতে প্রেরণ করেছেন। ফিরোজ ধামরাই উপজেলার শরিফবাগ গ্রামের হাবিবুর রহমান হাবির ছেলে।

জানা গেছে ১৭ বছর আগে একটি তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে একই গ্রামের নুরুল ইসলামের ছেলে তৈবুর রহমানকে ২০০৪ সালের সেপ্টেম্বর মাসে ধামরাই পৌরসভার সিমা সিনেমা হলের সামনে ছুরিকাঘাত করেন ফিরোজ আলম। এতে ঘটনাস্থলেই নিহত হন তৈবুর রহমান। এ ঘটনায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন নিহতের পিতা। এ মামলায় কিছুদিন পালিয়ে থেকে ফিরোজ আলম সৌদি আরবে চলে যান। এ ঘটনায় তার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত।

সৌদি আরবে ১৭ বছর অবস্থান করার পর কিছুদিন আগে দেশে আসেন ফিরোজ। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কালামপুর সাব রেজিস্ট্রি কার্যালয়ের পেছন থেকে ফিরোজ আলমকে গ্রেপ্তার করে ধামরাই থানা পুলিশ।

ধামরাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আতিকুর রহমান বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে একটি হত্যা মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি ফিরোজ আলমকে গ্রেপ্তার করে আদালতে সোপর্দ করা হয়। আদালত তাকে জেলহাজতে প্রেরণ করেন।



সাতদিনের সেরা