kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১২ কার্তিক ১৪২৮। ২৮ অক্টোবর ২০২১। ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

৫ দিনে কুকুরে কামড়ে আহত ৩৪!

কেশবপুর (যশোর) প্রতিনিধি   

১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ১৬:৪২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



৫ দিনে কুকুরে কামড়ে আহত ৩৪!

প্রতীকী ছবি।

যশোরের কেশবপুরে পাঁচদিনে ২২ শিশুসহ ৩৪জন কুকুরের কামড়ে আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এতে উপজেলাব্যাপী আতঙ্ক বিরাজ করছে। আক্রান্ত শিশুদের মধ্যে পাঁচজনের অবস্থা গুরুত্বর।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার বেলকাটি, হরিশপুর, বেগমপুর, কড়িয়াখালী, কমলাপুর, শিকারপুর, ব্রাহ্মণডাঙ্গা সহ বিভিন্ন গ্রামের ৩৪ জন নারী পুরুষসহ শিশু উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিয়েছে। এদের মধ্যে পাঁচ শিশুর অবস্থা গুরুতর।

উপজেলার মধ্যকুল গ্রামের ইউপি সদস্য আব্দুর রহিম বলেন, হঠাৎ উপজেলাব্যাপী বেওয়ারিশ কুকুরের আক্রমণ বেড়ে গেছে। সম্প্রতি তার ছেলে রাকিব হোসেনকে (১৫) একটি বেওয়ারিশ কুকুরে কামড়ে আহত করে। বেওয়ারিশ কুকুরের কামড়ে মানুষ ছাড়াও গরু-ছাগল আহত হচ্ছে।

কেশবপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলাউদ্দিন বলেন, ক্ষিপ্ত কুকুরের ভয়ে গ্রামের শিশু ও নারীরা বাড়ির বের হতে ভয় পাচ্ছে। এলাকার অভিভাবকরা কুকুরের আক্রমন থেকে স্কুলগামী ছেলে-মেয়েদের রক্ষা করতে লাঠি হাতে নিয়ে যাতায়াত করছেন।

উপজেলা প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা প্রকাশ চন্দ্র মন্ডল বলেন, কুকুর বিভিন্নভাবে ক্ষিপ্ত হয়ে মানুষসহ বিভিন্ন প্রাণির উপর আক্রমন করে। তাছাড়া প্রজনন সময়ে কুকুর বেশি ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে। কুকুর জলাতঙ্ক রোগে আক্রান্ত হওয়ার ১৪ দিনের ভেতর মারা যায়।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার আলমগীর হোসেন বলেন, কুকুর বা অন্যান্য প্রাণীর কামড়ে আহত হয়ে হাসপাতালে আসা রোগীদের চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। হাসপাতালে জলাতঙ্ক প্রতিশেধকের অভাব নেই। কুকুরের কামড়ে শিশুরা বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।



সাতদিনের সেরা