kalerkantho

বুধবার । ৪ কার্তিক ১৪২৮। ২০ অক্টোবর ২০২১। ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

চুরি ঠেকাতে ৫০০ ব্যবসায়ীর রাত জেগে বাজার পাহারা

হাজীগঞ্জ (চাঁদপুর) প্রতিনিধি   

১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ১৩:৫৪ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



চুরি ঠেকাতে ৫০০ ব্যবসায়ীর রাত জেগে বাজার পাহারা

চুরি ঠেকাতে প্রায় ৫০০ ব্যবসায়ী রাত জেগে পাহারা দেওয়া শুরু করেছেন। গত মঙ্গলবার রাত থেকে গলি ও মার্কেটভিত্তিক ভাগ হয়ে পাহারা কার্যক্রম শুরু করেছেন ব্যবসায়ীরা। গত বেশ কিছুদিন ধরে বাজারের বড় বড় প্রতিষ্ঠানে চুরি হওয়াকে কেন্দ্র করে পাহারাদার বাতিল করে ব্যবসায়ী সমিতি। এর পরেই সমিতি উক্ত কার্যক্রম চালু করে। চুরি হওয়ার ঘটনায় কয়েকজন ব্যবসায়ী থানায় অভিযোগ দেওয়ার পরও কোনো চোর আটক কিংবা মালামাল উদ্ধার হয়নি বলে ব্যবসায়ীরা কালের কণ্ঠকে জানিয়েছেন। ঘটনাটি চাঁদপুরের হাজীগঞ্জের বাকিলা বাজারের।

ব্যবসায়ীরা জানান, বাজারের পরিবেশ সুন্দর রাখার পাশাপাশি চুরি ঠেকাতে বাজার ব্যবসায়ী সমিতির নেতারা ও সর্বস্তরের ব্যবসায়ীরা আলোচনা করে পাহারার উদ্যোগ নেন। সেই আলোকে বাজারকে তারা চারটি ওয়ার্ডে ভাগ করে প্রতি ওয়ার্ডে তিনজন সমন্বয়ক নিয়োগ করেন। এই সমন্বয়কারীরা নিজ ওয়ার্ডের ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পরামর্শ করে ৪টি ওয়ার্ড থেকে মোট ১৩ জন ব্যবসায়ী সমন্বয় করবেন এবং এই ব্যবসায়ীরা রাত জেগে পাহারা দেবেন বলে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। গ্রুপভিত্তিক পাহারাদারের সঙ্গে ইউনিয়ন পরিষদ থেকে দেওয়া একজন গ্রাম পুলিশের সদস্য থাকবেন। এর বাইরে বিষয়টি তদারকি করবেন বিট পুলিশিংয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত পুলিশ কর্মকর্তা।

এদিকে, প্রতিদিন রাত ১১টার পর থেকে ভোর ৫টা পর্যন্ত বাজার পাহারা দেবেন ব্যবসায়ীরা। এসংক্রান্ত মাাইকিং করা হচ্ছে। যেসব ব্যবসায়ী পাহারাদায় নিজে উপস্থিত থাকতে পারবেন না তিনি নিজের বদলে একজনকে নিয়োজিত করবেন। ব্যবসায়ীদের মধ্যে যিনি এই নিয়ম মানবেন না তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে বাজার কমিটির সভাপতি অমল ধর জানিয়েছেন।

এ বিষয়ে বাকিলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মাহফুজুর রহমান ইউসুফ পাটওয়ারী জানান, বাজার এলাকায়  ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়, ইউনিয়ন ভূমি অফিস, ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্র, সরকারি ব্যাংক ও বেসরকারি কয়েকটি ব্যাংকের এজেন্ট, বাকিলা উচ্চ বিদ্যালয়, বাকিলা ফাজিল মাদরাসা, বাকিলা সপ্রাবি, কয়েকটি স মিলসহ ছোট-বড় ৫ শতাধিক ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান রয়েছে। সম্প্রতি বাজারে চুরি বেড়ে যাওয়ায় ব্যবসায়ীরা তাদের ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানের নিরাপত্তার জন্য নিজেরাই পাহারার উদ্যোগ নেন। সেই আলোকে ব্যবসায়ীদের সহযোগিতায় ইউনিয়ন পরিষদ থেকে একজন পাহারাদার স্থায়ীভাবে দেওয়া হয়েছে। 

হাজীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ হারুনু রশিদ বলেন, ব্যবসায়ীরা স্বেচ্ছায় রাত জেগে বাজার পাহারা দেওয়ার বিষয়টি আমি জেনেছি। তাদের উদ্যোগকে স্বাগত জানাই। তবে বাজার এলাকায় নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পুলিশও তৎপর রয়েছে। এ ছাড়া ওই ইউনিয়নের বিট পুলিশিংয়ের কর্মকর্তা তাদেরকে প্রত্যক্ষ সহযোগিতা করবেন।

বাজারে পাহারাদার থাকা সত্ত্বেও সম্প্রতি শৈলি গার্মেন্টস, হাজী ইলেকট্রিক, সাত্তার স্টোরে বড় ধরনের চুরির ঘটনা ঘটে। এসব ব্যবসায়ী থানায় অভিযোগ দিয়েছেন।

হাজীগঞ্জের বাকিলা বাজারের চুরি ঠেকাতে রাত জেগে পাহারায় ব্যবসায়ীরা। ছবি : কালের কণ্ঠ



সাতদিনের সেরা