kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১ আশ্বিন ১৪২৮। ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১।৮ সফর ১৪৪৩

সীতাকুণ্ডে সাগর পাড়ে ভেসে এলো তিনটি মৃত ডলফিন!

সৌমিত্র চক্রবর্তী, সীতাকুণ্ড (চট্টগ্রাম)   

১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ১৮:৪৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সীতাকুণ্ডে সাগর পাড়ে ভেসে এলো তিনটি মৃত ডলফিন!

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডের সাগর পাড়ে ভেসে এলো তিনটি মৃত ডলফিন। আজ বুধবার দুপুরে বাড়বকুণ্ড ইউনিয়নের মিয়াজীপাড়া এলাকায় ডলফিনগুলো দেখতে পান এলাকাবাসী। এ নিয়ে স্থানীয়দের মধ্যে কৌতূহলের সৃষ্টি হলে অনেকেই ডলফিনগুলো দেখতে ভিড় জমান। উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তার ধারণা পানি দূষণের কারণে ডলফিনগুলোর মৃত্যু হতে পারে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বুধবার দুপুরে উপজেলার বাড়বকুণ্ড ইউনিয়নের সাগর উপকূলের বিভিন্ন স্থানে তিনটি মৃত ডলফিন দেখতে পান এলাকাবাসী। সাগর পাড় ও উপকূলীয় বনের ভেতরে পড়ে থাকা ডলফিনগুলোর শরীর প্রচণ্ড গরমে পচতে শুরু করেছে। এদিকে সাগর থেকে ডলফিন ভেসে আসার খবর ছড়িয়ে পড়ার পর কৌতূহলী এলাকাবাসী ঘটনাস্থলে ভিড় জমাতে থাকলে এ খবর ছড়িয়ে পড়ে।

সরেজমিনে বাড়বকুণ্ড সাগর উপকূলে গিয়ে দেখা যায়, বাড়বকুণ্ডের মিয়াজী পাড়ায় অবস্থিত বিএম গ্যাস কারখানার পশ্চিমে সাগর উপকুলে একটি ডলফিন পড়ে আছে। উপকূলীয় বনের ঘাসের ওপরে পড়ে থাকা ডলফিনটি আনুমানিক ৭ ফুট লম্বা। এটি দেখতে হালকা হলদে রঙের। প্রচণ্ড সূর্যের তাপে ইতিমধ্যে ডলফিনটির পচন শুরু হয়েছে। লেজের অংশ কিছুটা কালচে হয়ে গেছে এরই মধ্যে।

পরিদর্শনকালে এলাকার কৃষক মো. নুর উদ্দিন জানান, গত মঙ্গলবার ও বুধবার বাড়বকুণ্ড উপকূলের ২ কিলোমিটার এলাকার মধ্যে মোট ৩টি ডলফিন ভেসে এসেছে। ডলফিনগুলো দেখে মনে হচ্ছে এরা কাল বা পরশু মারা গেছে।

এদিকে প্রথম দিকে এগুলো ডলফিন কি-না তা নিয়ে সন্দেহ দেখা দিলে এ প্রতিবেদক ডলফিনের ছবি উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. শামীম আহমেদকে পাঠান। তিনি ছবিগুলো দেখে মৃত এ প্রাণীগুলো ডলফিন বলে নিশ্চিত করেন।

মৎস্য কর্মকর্তা শামীম আহমেদ আরো বলেন, এই ডলফিনটি মূলত মিঠা পানির নদীর ডলফিন। কোনো শাখা নদী থেকে সাগরে এসে দূষিত পানির কারণে মারা গেছে বলে আমার ধারণা।

এদিকে ডলফিনগুলো ভেসে আসার খবর পেয়ে বুধবার বিকালে ঘটনাস্থলে বন কর্মকর্তাদের পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন সীতাকুণ্ড উপকূলীয় রেঞ্জ কর্মকর্তা মো. কামাল হোসেন। তিনি বলেন, আমি বুধবার বিকালে ডলফিন ভেসে আসার খবর পেয়ে বিট কর্মকর্তাদের পাঠিয়েছি। তারা গিয়ে এগুলোর সুরতহাল তৈরিসহ আনুষাঙ্গিক প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে ব্যবস্থা নেবেন।



সাতদিনের সেরা