kalerkantho

রবিবার । ৪ আশ্বিন ১৪২৮। ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১১ সফর ১৪৪৩

স্কুল খোলার প্রথম দিনে ফেরার পথে শ্লীলতাহানি শিকার ছাত্রী

তাড়াশ-রায়গঞ্জ (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি   

১২ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ১৯:৪৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



স্কুল খোলার প্রথম দিনে ফেরার পথে শ্লীলতাহানি শিকার ছাত্রী

প্রতীকী ছবি।

সিরাজগঞ্জের তাড়াশে বিদ্যালয় খোলার প্রথম দিনেই স্কুলে গিয়ে ফেরার পথে শ্লীলতাহানির শিকার হয়েছে এক স্কুলছাত্রী। আজ রবিবার দুপুরে তাড়াশ উপজেলার বারুহাঁস ইউনিয়নের বারুহাঁস বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বারুহাঁস ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মোক্তার হোসেন মুক্তা। তিনি বিকাল ৪টার দিকে বলেন, এ ঘটনায় থানা পুলিশের সহযোগিতা নিতে ছাত্রীর অভিভাবকদের পরামর্শ দিয়েছি। 

যৌন হয়রানির শিকার স্কুলছাত্রীর অভিভাবকরা জানান, স্থানীয় একটি উচ্চ বিদ্যালয়ের ওই শিক্ষার্থী রবিবার সকালে ক্লাস করতে যায়। পরে দুপুরে স্কুল থেকে বাড়ি ফেরার পথে বারুহাঁস বাজারের তাড়াশ মোড় এলাকায় পৌঁছালে একই ইউনিয়নের দীঘরিয়া গ্রামের আব্দুল মজিদের ছেলে আতিকুল ইসলাম আতিক (২২) ওই স্কুলছাত্রীকে জাপটে ধরে শ্লীলতাহানি করেন। এসময় ওই স্কুলছাত্রী চিৎকার করলে তার সঙ্গে থাকা সহপাঠি শিক্ষার্থীরা এগিয়ে এসে তাকে রক্ষা করে। স্কুলছাত্রীর মুখ এসিড দিয়ে ঝলসে দেওয়ার ও সহপাঠিদের দেখে নেওয়ার হুমকিও দেন আতিকুল। পরে ওই ছাত্রী ও তার সহপাঠিরা স্কুলে ফিরে গিয়ে বিষয়টি বিদ্যালয়ে উপস্থিত থাকা শিক্ষকদের জানান।

তারপর কয়েকজন শিক্ষক, শিক্ষার্থীরা ও ওই স্কুলছাত্রীর অভিভাবকেরা তাড়াশ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার মো. মেজবাউলের করিমের অফিসে এসে শ্লীলতাহানির বিষয়টি মৌখিকভাবে তাকে জানান। এরপর তাড়াশ ইউএনও তাৎক্ষণিকভাবে বিষয়টি তাড়াশ থানার ওসিকে জানিয়ে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য বলেন। 

তাড়াশ থানার ওসি মো. ফজলে আশিক বলেন, ‘আমি ওই স্কুলছাত্রীর অভিযোগটি গ্রহণ করে থানার সেকেন্ড অফিসারকে দ্রুত ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দিয়েছি।’



সাতদিনের সেরা