kalerkantho

শুক্রবার । ৬ কার্তিক ১৪২৮। ২২ অক্টোবর ২০২১। ১৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

ধর্ষণের শিকার তিন বছরের শিশু, অভিযুক্ত গ্রেপ্তার

ঘাটাইল (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি   

১১ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০৫:২১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ধর্ষণের শিকার তিন বছরের শিশু, অভিযুক্ত গ্রেপ্তার

গ্রেপ্তার ধর্ষক শাকিল হোসেন

টাঙ্গাইলের ঘাটাইলে চকলেটের লোভ দেখিয়ে তিন বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার (৯ সেপ্টেম্বর) সকালে উপজেলার আকন্দেরবাইদ গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে। এলাকাবাসী অভিযুক্ত ধর্ষককে গ্রেপ্তার করে পুলিশে সোপর্দ করেছে। এ ঘটনায় শিশুর বাবা বাদী হয়ে ঘাটাইল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেছেন।

মামলার বিবরণ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, গত  বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে শিশুটির মা তাকে বাড়িতে না পেয়ে ডাকাডাকি শুরু করেন। এক পর্যায়ে পাশের বাড়িতে শিশুটির কান্নার শব্দ শুনতে পান। এ সময় তার মা এই বাড়িতে গেলে শিশুটি কাঁদতে কাঁদতে প্রতিবেশী আব্দুল আলিমের ছেলে শাকিল হোসেনের (২৩) ঘর থেকে বের হয়ে আসে। 

এ সময় মা শিশুটিকে কান্নার কারণ জিজ্ঞাসা করলে সে জানায় জাহিদুল তাকে চকলেটের লোভ দেখিয়ে ঘরে নিয়ে তার সঙ্গে খারাপ কাজ করেছে। পরে শিশুর মা ঘটনাটি তার স্বামীকে জানায়। তার স্বামী বিষয়টি গ্রামবাসীকে অবগত করলে গ্রামবাসী উত্তেজিত হয়ে বখাটে শাকিলকে গণপিটুনি দিয়ে বেঁধে রাখে। পরে উপস্থিত গ্রামবাসীর কাছে সে শিশুটিকে ধর্ষণের কথা স্বীকার করে। খবর পেয়ে উপজেলার সাগরদিঘী তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে শাকিলকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। শিশুটিকে স্থানীয় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করানো হয়।

পরে শিশুটির বাবা বাদী হয়ে বখাটে শালিককে আসামি করে ঘাটাইল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন।

স্থানীয় ইউপি সদস্য হাবিবুর রহমান খান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, শাকিল বিবাহিত এবং এক সন্তানের জনক। মাদকাসক্ত থাকার কারণে বছর খানেক আগে তার স্ত্রী সংসার ছেড়ে চলে গেছে। শাকিলের বাবা-মা ভাই সবাই ঢাকায় থেকে বিভিন্ন ধরনের কাজ করে। শাকিল একাই বাড়িতে থাকত। এ ঘটনার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হওয়া প্রয়োজন। 

ঘাটাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজহারুল ইসলাম সরকার জানান, এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। শুক্রবার সকালে শিশুটিকে ডাক্তারি পরীক্ষার করানো জন্য টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। মামলার একমাত্র আসামি শাকিলকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে। 



সাতদিনের সেরা