kalerkantho

সোমবার  । ১২ আশ্বিন ১৪২৮। ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১৯ সফর ১৪৪৩

টিসিবির পণ্য কিনতে দীর্ঘ সারি ব্রাহ্মণবাড়িয়ায়

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি    

৮ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০৯:০৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



টিসিবির পণ্য কিনতে দীর্ঘ সারি ব্রাহ্মণবাড়িয়ায়

ছবি: কালের কণ্ঠ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ট্রেডিং করপোরেশন বাংলাদেশ (টিসিবি)-এর পণ্য কিনতে প্রতিদিন ভিড় জমাচ্ছে সাধারণ ক্রেতারা।

গতকাল মঙ্গলবার (৭ সেপ্টেম্বর) সরেজমিনে দেখা যায়, সকাল ৯টা থেকে পণ্য দেওয়ার কথা থাকলেও ভোর ৬টা থেকেই ভিড় করতে থাকেন সাধারণ ক্রেতারা। তবে যথেষ্ট শৃঙ্খলা না থাকায় পণ্য কিনতে সমস্যা সৃষ্টি হয় বলে অভিযোগ করেন অনেকে। 

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ব্রাহ্মণাবড়িয়া পৌর এলাকার বঙ্গবন্ধু স্কয়ারে সরকারি ব্যবস্থাপনায় গতকাল মঙ্গলবার সকাল ৯টায় টিসিবির পণ্য বিক্রি শুরু করে বিসমিল্লাহ ট্রেডার্স। পিকআপ ভ্যানে করে তারা প্রতিকেজি চিনি ৫৫ টাকা, মসুর ডাল ৫৫ টাকা, ভোজ্য তেল ১০০ টাকা কেজি দরে বিক্রি করেন। বর্তমান বাজার মূল্যের চেয়ে কম হওয়ায় ক্রেতারা এখানে ভিড় জমান। 

পৌর এলাকার মধ্যপাড়ার রীনা আক্তার অভিযোগ করেন, 'সকাল ৭টায় লাইনে দাঁড়িয়েও ১১টা নাগাদ পণ্য কিনতে পারিনি আমি। ডিলারের পরিচিত লোকজন লাইন না মেনে পণ্য নিয়ে যাচ্ছে। কেউ কেউ একাধিকবার এসে নিয়ে যাচ্ছে।'

ফরিদ মিয়া নামের আরেক ক্রেতা অভিযোগ করেন, 'পণ্য বিক্রিতে কোনো ধরনের নিয়ন্ত্রণ নেই। কয়েক ঘণ্টা  দাঁড়িয়েও যেখানে পণ্য পাওয়া যাচ্ছে না, সেখানে হঠাৎ  এসেই অনেকে পণ্য নিয়ে যাচ্ছেন।' পণ্য দেওয়ার ক্ষেত্রে একটা নিয়ম করার দাবি জানান তিনি।

তবে এসব অনিয়মের অভিযোগ অস্বীকার করেছেন টিসিবির ডিলার বিসমিল্লাহ ট্রেডার্সের ব্যবস্থাপক মো. রনি মিয়া। তিনি বলেন, 'পণ্যের বরাদ্দ কম বিধায় ক্রেতার ঝামেলা একটু বেশি। পণ্যের বরাদ্দ বাড়লে বিক্রির কাজে সুবিধা হতো।'

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা প্রশাসক হায়াত-দৌলা খান বলেন, 'গণটিকার দ্বিতীয় ডোজ চলমান থাকায় কিছু সময়ের জন্য জেলা প্রশাসনের ম্যাজিস্ট্রেটরা ওই কার্যক্রম তদারকিতে চলে যান। এ কারণে হয়তো সকালের সময়টাতে সেভাবে মনিটরিং হয়নি। যদি অনিয়মের বিষয়ে তথ্য পাওয়া যায় তবে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।'  



সাতদিনের সেরা