kalerkantho

সোমবার  । ১২ আশ্বিন ১৪২৮। ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১৯ সফর ১৪৪৩

ফুলগাজী-পরশুরামে ফের বেড়িবাঁধে ভাঙন, ১৪ গ্রাম প্লাবিত

ফেনী প্রতিনিধি   

৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ১৮:১২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ফুলগাজী-পরশুরামে ফের বেড়িবাঁধে ভাঙন, ১৪ গ্রাম প্লাবিত

উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে মুহুরী নদী রক্ষা বাঁধের দুই স্থানে ভাঙনে ফেনীর ফুলগাজী ও পরশুরামের অন্তত ১৪ গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। রবিবার ফুলগাজীর জয়পুর এলাকায় ও সোমবার পরশুরামের সাতকুচিয়া এলাকায় ভাঙনে ভেসে গেছে পুকুরের মাছ, তলিয়ে গেছে রোপা আমন ও শীতকালীন আগাম সবজি। বন্ধ হয়ে গেছে ফুলগাজী-পরশুরাম সড়ক যোগাযোগ। পানির চাপ অপরিবর্তিত থাকায় দুই উপজেলায় আরো নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

পানি উন্নয়ন বোর্ড সূত্র জানায়, এর আগে চলতি বছরের ১ জুলাই, ২৬ আগস্ট এবং সর্বশেষ ৫ সেপ্টেম্বর মোট তিনবার বেড়িবাঁধ ভেঙে বন্যার কবলে পড়েন ফুলগাজী ও পরশুরামের বাসিন্দারা। এসব ভাঙনেও ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির মুখে পড়েন স্থানীয়রা।

পরশুরামের বক্স মাহমুদ ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য মোহাম্মদ জাহিদ জানান, সোমবার সকালের দিকে কহুয়া নদীর পানির চাপে পূর্ব সাতকুচিয়া গ্রামে বেড়েবাঁধের একটি স্থানে ভাঙন দেখা দেয়। সন্ধ্যা পর্যন্ত প্রবল পানির স্রোতে পূর্ব সাতকুচিয়া, পশ্চিম সাতকুচিয়া, রতনপুর, রামপুর, চিথলিয়া ও সলিয়া গ্রাম পানির নিচে তলিয়ে গেছে।

পানি উন্নয়ন বোর্ড ফেনীর নির্বাহী প্রকৌশলী মোহাম্মদ জহির উদ্দীন জানান, মুহুরী ও কহুয়া নদীর ২ স্থানে নদী রক্ষা বাঁধের ভাঙনে বেশকিছু গ্রামে পানি ঢুকে পড়েছে। পানির চাপ কমলেই ভাঙন কবলিত স্থানে মেরামত করে দেওয়া হবে।

তিনি জানান, এখনো মুহুরী ও কহুয়া নদীর পানি বিপৎসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। চাপ না কমলে নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে বলে তিনি জানান।



সাতদিনের সেরা