kalerkantho

রবিবার । ১ কার্তিক ১৪২৮। ১৭ অক্টোবর ২০২১। ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

মহাসড়কে যাত্রীবাহী প্রাইভেটকারে চড়ে ছিনতাইয়ের শিকার কারখানা কর্মকর্তা

মির্জাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি    

৩ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ১৪:২৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মহাসড়কে যাত্রীবাহী প্রাইভেটকারে চড়ে ছিনতাইয়ের শিকার কারখানা কর্মকর্তা

মশিউর রহমান। তিনি মির্জাপুর উপজেলার জামুর্কী ইউনিয়নের ধল্যা এলাকার গ্রিনট্রেক্স কারখানার অ্যাডমিন ম্যানেজার। অফিস শেষে ঢাকায় যাওয়ার উদ্দেশ্যে উপজেলার পাকুল্যা বাসস্ট্যান্ডে বাসের জন্য অপেক্ষা করছিলেন। এসময় সাদা রংয়ের একটি প্রাইভেটকার এসে থামে। প্রাইভেটকারের চালক মশিউর রহমানের কাছে জানতে চান কোথায় যাবেন? তিনি ঢাকায় যাবেন জানালে চালক নির্ধারিত গন্তব্যে পৌঁছে দেয়ার কথা বলে প্রাইভেটকারে তোলেন। মহাসড়কের ধল্যা বাসস্ট্যান্ডের আগে প্রাইভেটকারটি ঘুরিয়ে টাঙ্গাইলের দিকে রওনা হয়। এসময় গাড়ির ভেতরে ছিনতাইকারী চক্রের আরও দুই সদস্য ছিলেন। তারা মশিউরকে বেঁধে মারপিট শুরু করেন। পরে তারা ব্যাংকের এটিএম কার্ড ও দুটি ফোন ছিনেয়ে নেয়। ওই কার্ড দিয়ে টাঙ্গাইল সদরের একটি বুথ থেকে ৯০ হাজার টাকা তোলে চক্রটি। রাত ৯টার দিকে আহত অবস্থায় ওই কর্মকর্তা মির্জাপুর থানায় উপস্থিত হয়ে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

পুলিশ জানায়, গতকাল বৃহস্পতিবার বিকাল ৩টার দিকে গ্রিনট্রেক্স কারখানার অ্যাডমিন ম্যানেজার মশিউর রহমান অফিস শেষে ঢাকা যাওয়ার উদ্দেশে পাকুল্যা বাসস্ট্যান্ডে বাসের জন্য অপেক্ষা করছিলেন। এ সময় সাদা রংয়ের একটি প্রাইভেটকার সেখানে থামে। চালক নেমে ঢাকা যাওয়ার যাত্রী খুঁজতে থাকেন। মশিউর রহমান সেই প্রাইভেটকারের যাত্রী হন। আগে থেকে প্রাইভেটকারটিতে ছিনতাইকারী চক্রের আরও দুই সদস্য যাত্রীবেশে বসা ছিল বলে মশিউর পুলিশকে জানান। তিনজনকে নিয়ে চালক ঢাকার উদ্দেশে রওনা দেন। ধল্যা এলাকায় এসে চালক প্রাইভেটকারটি ঘুরিয়ে টাঙ্গাইলের দিকে রওনা দেয়। এ সময় মশিউর রহমান বাঁধা দিলে ওই দুই ছিনতাইকারী তার চোখ ও হাত বেঁধে ফেলে এবং রড দিয়ে পেটাতে থাকে। এসময় তার সঙ্গে থাকা ডাচ বাংলা ব্যাংকের এটিএম কার্ড ও দুটি মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেয়। পরে কার্ডের গোপন নম্বর জেনে টাঙ্গাইল সদর বুথ থেকে প্রতারক চক্র নব্বই হাজার টাকা তোলে নেয়।

সন্ধ্যায় আহত অবস্থায় মশিউর রহমানকে টাঙ্গাইল সদরের রাবনা বাইপাস এলাকায় ফেলে প্রতারক চক্র প্রাইভেটকার নিয়ে চম্পট দেয়। স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে কুমুদিনী হাসপাতালে নিয়ে আসেন। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে রাত ৯টার দিকে মির্জাপুর থানায় লিখিত অভিযোগ করেন মশিউর।

মির্জাপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) কামাল হোসেন অভিযোগ পাওয়ার কথা স্বীকার করে বলেন, অভিযোগ তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।



সাতদিনের সেরা