kalerkantho

রবিবার । ৪ আশ্বিন ১৪২৮। ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১১ সফর ১৪৪৩

চাঁদপুরের জেলেরা পেল প্রধানমন্ত্রীর উপহার

চাঁদপুর প্রতিনিধি   

২ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ২৩:৫৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চাঁদপুরের জেলেরা পেল প্রধানমন্ত্রীর উপহার

হরেক রকমের খাদ্য সামগ্রী পেয়ে দারুণ খুশি চাঁদপুরের প্রান্তিক পর্যায়ের দুস্থ অসহায় জেলেরা। কারণ, এর আগে এমন মানসম্মত খাবার কেউ তুলে দেয়নি তাদের। জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর খাদ্য সহায়তা উপহার পেলেন চাঁদপুরের প্রান্তিক পর্যায়ের এমন ২ শতাধিক জেলে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে চাঁদপুর স্টেডিয়ামে জেলে হিসেবে পরিচয়পত্রধারী উপস্থিত এসব জেলের হাতে খাদ্য সহায়তা তুলে দেন জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ। এতে প্রতিটি বস্তায় ১০ কেজি চাল, এক কেজি করে তেল, ডাল, লবন, চিনিহ ৭ প্রকারের খাদ্য সামগ্রি প্রত্যেক জেলের হাতে তুলে দেওয়া হয়।

অনুষ্ঠানে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) ইমতিয়াজ হোসেন, মৎস্যবিজ্ঞানী ড. হারুনুর রশিদ, জেলা মৎস্য কর্মকর্তা গোলাম মেহেদী হাসান, জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক কাজী শাহাদাত, সদর উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা সুদীপ ভট্টাচায্য, জেলে নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মালেক দেওয়ান, শাহআলম মল্লিক, তসলিম বেপারীসহ জেলা প্রশাসনের অন্যান্য কর্মকর্তাসহ জেলে নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষে জেলেদের মাঝে খাদ্য প্রধানমন্ত্রীর উপহার তুলে দেওয়া সম্পর্কে জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ বলেন, একদিকে করোনার ছোবল। অন্যদিকে, এই সময় নদীতে মাছ মিলছে না। এমন পরিস্থিতিতে প্রান্তিক জেলেদের যারা চরম কষ্টে আছেন। তাদের মধ্য থেকে বাছাই করা জেলেদের প্রধানমন্ত্রীর এই উপহার তুলে দেওয়া হয়েছে। জেলা প্রশাসক, আগামীতে মা ইলিশ রক্ষা কর্মসূচি কিংবা জাটকা সংরক্ষণের সময় নদীতে মাছ ধরা নিষিদ্ধ থাকা কালে জেলেদের বিকল্প কর্মসংস্থান তৈরি এবং খয়রাতি খাদ্য সহায়তা না দিয়ে ব্যাংক হিসেবের মাধ্যমে আর্থিক প্রনোদনা দেওয়ার বিষয়টি নিয়ে সরকারের কাছে প্রস্তাবনা পাঠানোর কথা জানান তিনি।

শুধু তাই নয়, জেলেদের জীবনমান উন্নয়নে সবসময় পাশে থাকার প্রতিশ্রুতি দেন জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ। প্রসঙ্গত, চাঁদপুরে সরকারি তালিকায় জেলের সংখ্যা প্রায় ৫২ হাজার। এদের মধ্যে বেশিরভাগই প্রান্তিক পর্যায়ের যাদের নিজস্ব জাল ও নৌকা নেই।



সাতদিনের সেরা