kalerkantho

শুক্রবার । ৯ আশ্বিন ১৪২৮। ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১৬ সফর ১৪৪৩

সাবেক স্বামীর ছুরিকাঘাতে তরুণী হাসপাতালে

জামালপুর প্রতিনিধি   

২৮ আগস্ট, ২০২১ ২০:০৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সাবেক স্বামীর ছুরিকাঘাতে তরুণী হাসপাতালে

নার্সিং ইনস্টিটিউটের ছাত্রী সাবিনা ইয়াসমিনকে (২০) ছুরিকাঘাত করে পালানোর সময় তার প্রাক্তন স্বামী শাহীন আলমকে (২১) আটক করেছে স্থানীয়রা। আজ শনিবার বিকেলে জামালপুর শহরের প্রধান সড়কের তমালতলা মোড়ে এ ঘটনা ঘটে।

গুরুতর আহত সাবিনাকে জামালপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সাবিনা ইয়াসমিন শেরপুর জেলার ঝিনাইগাতী উপজেলার ঝোকাকুঁড়া গ্রামের সালেহ আহমদের মেয়ে। আটক শাহীন আলম একই উপজেলার গুরুচরণ দুধনই গ্রামের আবুল কালামের ছেলে।

সূত্র জানায়, সকালে নার্সিং পরীক্ষা শেষে বিকেলে ওই এলাকায় সহপাঠী ইনটার্ন নার্সের সঙ্গে দেখা করতে যান সাবিনা। বিকেল ৫টার দিকে ফেরার পথে তার ওপর হামলা হয়।

সাবিনার বাবা সালেহ আহমদ কালের কণ্ঠকে জানান, তিন মাস আগে তাদের বিচ্ছেদ হয়েছে।এর পর থেকে শাহীন সাবিনাকে হুমকি দিয়ে আসছিল। আজ সকালে নার্সিং পরীক্ষা দিতে জামালপুরে যায় সাবিনা। এ সময় শাহীন তার ওপর হামলা করে।

জামালপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রেজাউল ইসলাম খান বলেন, এ ঘটনায় শাহীন আলমকে ঘটনাস্থল থেকে আটক করা হয়েছে। সাবিনার শরীরের গলা, বুক, পিঠসহ বিভিন্ন স্থানে ধারালো ছুরি দিয়ে আঘাত করা হয়েছে। তার পরিবারের সদস্যরা এলে আটক শাহীন আলমকে আসামি করে থানায় মামলা দায়ের করা হবে।



সাতদিনের সেরা