kalerkantho

শুক্রবার । ৯ আশ্বিন ১৪২৮। ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১৬ সফর ১৪৪৩

বরিশালে ব্যানার খোলা নিয়ে সংঘর্ষ, অনে‌কে গু‌লি‌বিদ্ধ

‌নিজস্ব প্রতি‌বেদক, ব‌রিশাল   

১৯ আগস্ট, ২০২১ ০১:১২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বরিশালে ব্যানার খোলা নিয়ে সংঘর্ষ, অনে‌কে গু‌লি‌বিদ্ধ

বরিশালে জাতীয় শোক দিবসের ব্যানার খোলাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে আনসার সদস্যদের স‌ঙ্গে আওয়ামী লী‌গের সহ‌যো‌গী সংগঠ‌নের সদস্য‌দের সংঘর্ষ হ‌য়ে‌ছে। আনসার সদস্যদের গু‌লি‌তে অনে‌কে আহত হয়েছেন। বুধবার (১৮ আগস্ট) রাত ১১টার দিকে বরিশাল সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

বরিশাল সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মুনিবুর রহমানের সরকারি বাসভবনে হামলার ঘটনা ঘটেছে। বুধবার (১৮ আগস্ট) রাতে দুই দফায় জেলা ছাত্রলীগের কয়েক শ নেতাকর্মী তার বাসভবনে হামলা চালায়। হামলায় তাদের হামলায় ইউএনও’র বাসভবনে নিরাপত্তার দায়িত্বে নিয়োজিত কয়েকজন আনসার সদস্য আহত হয়েছেন।

এ ঘটনায় মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহমুদ হাসান বাবুকে পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। কোতোয়ালী থানার ওসি নুরুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। ঘটনার পর ইউএনও’র নিরাপত্তায় গোয়েন্দা পুলিশের সদস্যসহ অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

ইউএনও মুনিবুর রহমান হামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গণের ভেতরে বিভিন্ন স্থানে শোক দিবস উপলক্ষে পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী কর্নেল (অব.) জাহিদ ফারুকের ব্যানার-পোস্টার লাগানো ছিল। রাতে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা এসব ছিঁড়তে আসে। রাতে লোকজন ঘুমাচ্ছে জানিয়ে তিনি ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের বৃহস্পতিবার সকালে এগুলো ছিঁড়তে বলেন।

এরপর তারা তাকে গালিগালাজ করতে থাকে। এক পর্যায়ে তারা ইউএনওর বাসায় ইটপাটকেল নিক্ষেপ করতে থাকে। রাত সাড়ে ১০টা এবং ১১টায় দুই দফায় তারা হামলা চালায় বলে জানান ইউএনও মুনিবুর রহমান।

রাত ১২টায় হামলাকারীরা ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কে অবস্থান করছিল। এমন‌কি সি‌টি কর‌পো‌রেশ‌নের ময়লার গা‌ড়ি রাস্তায় রে‌খে যান চলাচ‌লে প্রতিবন্ধকতা সৃ‌ষ্টি কর‌ছিল। রাস্তায় ময়লাও ফেলা হ‌য়ে‌ছে।

বরিশাল কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নুরুল ইসলাম জানান, তুচ্ছ বিষয়কে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ শুরু হয়েছে। তি‌নি আ‌রো ব‌লেন, সংঘর্ষ থামাতে আনসার সদস্যরা শটগা‌নের গু‌লি‌তে বেশ ক‌য়েক জন আহত হন।

জেলা ছাত্রলীগের সহসভাপতি আতিকুল্লাহ মুনিম ও সাজ্জাদ সেরনিয়াবাত দাবি ক‌রে‌ছেন, সিটি করপোরেশনের মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহসহ অন্তত ৩০ জন আহত হ‌য়ে‌ছেন। তি‌নি ব‌লেন, সংঘর্ষ থামাতে আনসার গুলি চালালে মেয়রসহ ৩০ জন আহত হন।



সাতদিনের সেরা