kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১২ কার্তিক ১৪২৮। ২৮ অক্টোবর ২০২১। ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

তাহিরপুরে ধর্ষণের শিকার ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর তরুণী

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি   

১৪ আগস্ট, ২০২১ ১৭:০৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



তাহিরপুরে ধর্ষণের শিকার ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর তরুণী

সুনামগঞ্জের তাহিরপুর সীমান্তে হতদরিদ্র বাবার বাড়ি বেড়াতে এসে ধর্ষণের শিকার হয়েছেন হাজং জাতিগোষ্ঠীর এক সদ্য বিবাহিত তরুণী। শনিবার (১২ আগস্ট) সকালে উপজেলার উত্তর বড়দল ইউনিয়নের রাজাই গ্রামের পাহাড়ি রাজাই ছড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। 

অভিযুক্ত একই গ্রামের আবুল কালামের ছেলে আব্দুর রশিদ ঘটনার পর থেকে পলাতক আছেন। ঘটনাস্থলে পুলিশ অবস্থান করছে বলে জানা গেছে। তবে ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে প্রভাবশালী একটি গোষ্ঠীর পক্ষে উপজেলার একজন জনপ্রতিনিধি তৎপরতা চালাচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, রাজাই গ্রামের হতদরিদ্র হাজং শ্রমিকের কন্যা কদিন আগে স্বামীর বাড়ি থেকে বাবার বাড়ি বেড়াতে আসেন। শনিবার সকালে বাড়ি থেকে তিনি রাজাই গ্রামের পাহাড়ি ছড়া (নালা) গোসল করতে যান। এ সময় একই গ্রামের আব্দুর রশিদ তাকে একা পেয়ে ধর্ষণ করে। তরুণীর চিৎকার করলেও বৃষ্টির কারণে কেউ শুনতে পায়নি। দুপুরে খবর পেয়ে থানা পুলিশ গ্রামে আসে।

উত্তর বড়দল ইউনিয়নের সংরক্ষিত ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য সুষমা জাম্বিল বলেন, শনিবার সকালে নদীতে গোসল করতে গিয়ে হাজং গৃহবধূ নির্যাতনের শিকার হয়েছেন। এ ঘটনায় আমাদের কমিউনিটির সবাই ক্ষুদ্ধ। আমাদের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দকেও বিষয়টি জানানো হয়েছে। 

তাহিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আব্দুল লতিফ সরদার বলেন, আমি কিছুক্ষণ আগে বিষয়টি শুনেছি। বাদাঘাট পুলিশ ফাঁড়ির পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়েছে। এ ঘটনায় দ্রুত আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সুনামগঞ্জ পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান বলেন, 'খবর পেয়ে পুলিশকে দ্রুত ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।'



সাতদিনের সেরা