kalerkantho

রবিবার । ১ কার্তিক ১৪২৮। ১৭ অক্টোবর ২০২১। ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

এক দড়িতে শেষ বেয়াই-বেয়াইনের প্রেম

অনলাইন ডেস্ক   

১৪ আগস্ট, ২০২১ ১৫:৩৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



এক দড়িতে শেষ বেয়াই-বেয়াইনের প্রেম

পরিবারের আহাজারি।

ঝিনাইদহের মহেশপুরে এক দঁড়িতে এক তরুণ ও এক কিশোরীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সম্পর্কে তারা বেয়াই-বেয়াইন বলে জানা গেছে। শনিবার (১৪ আগস্ট) সকালে পুলিশ উপজেলার চাপাতলা গ্রামের আল আমিন নামে এক কৃষকের রান্নাঘর থেকে তাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

মৃতরা হলেন আবু সাইদ (১৮) ও সোহানা খাতুন (১৬)। সাইদ আল আমিনের চাচাতো ভাই এবং সোহানা তার স্ত্রীর ছোট বোন। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।

নিহত আবু সাইদ উপজেলার স্বরুপপুর ইউনিয়নের চাপাতলা গ্রামের দিনমজুর আবু সুলতানের ছেলে এবং সোহানা খাতুন একই উপজেলা নেপা ইউনিয়নের কাঞ্চনপুর গ্রামের শাহ জামালের মেয়ে।

স্থানীয়রা জানান, আলামিনের শ্যালিকা সোহানা তাদের বাড়িতে থাকত। কয়েক মাস ধরে চাচাতো ভাই সাঈদের সঙ্গে সোহানার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। বিষয়টি উভয় পরিবারের সদস্যদের মধ্যে জানাজানি হয়। কিন্তু পরিবার দুটি এ সম্পর্ক মেনে নিতে অস্বীকার করে। পরিবার সম্পর্ক মেনে না নেওয়ায় তারা আত্মহত্যা করতে পারে বলে ধারণা করছে স্থানীয়রা।

সোহানা খাতুনের বড় বোন শেলি খাতুন জানান, করোনাকালীন স্কুল বন্ধ থাকায় দেড় মাস আগে সোহানা তাদের বাড়িতে বেড়াতে এসেছে। শুক্রবার রাতে খাবার খেয়ে ঘরে ঘুমাতে যায় সে। সকালে রান্না করতে গিয়ে দেখেন, সোহানা ও সাঈদ একই সঙ্গে ঝুলছে।

মহেশপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইফুল ইসলাম জানান, ধারণা করা হচ্ছে তারা আত্মহত্যা করেছে। তবে বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে। সদর হাসপাতাল মর্গে লাশ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় মহেশপুর থানায় অপমৃত্যুর মামলার প্রস্তুতি চলছে।



সাতদিনের সেরা