kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১ আশ্বিন ১৪২৮। ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১।৮ সফর ১৪৪৩

জেনারেটরের পাখায় ওড়না পেচিয়ে স্কুলছাত্রীর মৃত্যু

মির্জাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি   

১১ আগস্ট, ২০২১ ১৬:৫৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জেনারেটরের পাখায় ওড়না পেচিয়ে স্কুলছাত্রীর মৃত্যু

টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে নৌকা ভ্রমণে গিয়ে জেনারেটরের পাখায় ওড়না পেচিয়ে গলায় ফাঁস লেগে মারিয়া আক্তার নামে অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রীর মৃত্যু হয়েছে। আজ বুধবার দুপুরে বংশাই নদীর মির্জাপুর উপজেলার আজগানা ইউনিয়নের পলাশতলী নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

মারিয়া আক্তার মির্জাপুর উপজেলার মহেড়া ইউনিয়নের দেওভোগ গ্রামের মেহেদী হাসান চান মিয়ার মেয়ে ও মির্জাপুর পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রী বলে জানা গেছে।

জানা গেছে, উপজেলার মহেড়া ইউনিয়নের দেওভোগ গ্রামের মেহেদী হাসান চান মিয়া মির্জাপুর বাজারের ব্যবসায়ী আব্দুল আলিমের বাইপাস এলাকার বাসায় পরিবার নিয়ে ভাড়া থাকেন। বুধবার সকালে আব্দুল আলিমের পরিবারসহ কয়েকটি পরিবার ইঞ্জিনচালিত নৌকাযোগে কালিয়াকৈর উপজেলার বরইবাড়ি এলাকার মকশ বিলে পিকনিকে যাচ্ছিলেন। মারিয়া আক্তারও তাদের সাথে যাচ্ছিল। তারা সকলেই সদরের ত্রিমোহন খেয়াঘাট এলাকা থেকে ইঞ্জিনচালিত নৌকায় যাত্রা করেন। নৌকায় জেনারেটর দিয়ে সাউন্ডবক্সে গান বাজিয়ে আনন্দ উল্লাস করতে করতে যাচ্ছিলেন তারা। পথিমধ্যে উপজেলার হাটুভাঙ্গা সেতুর কাছে পৌঁছানোর পর মারিয়া নৌকার ছাদ থেকে নিচে নামছিল। এ সময় মারিয়ার ওড়না জেনারেটরের পাখায় পেচিয়ে গেলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

দেওভোগ গ্রামের বাসিন্দা সাবেক ইউপি সদস্য মো. আক্তার হোসেন ও আলিমের বড় ভাই আব্দুল হালিম জানান, ইঞ্জিনচালিত নৌকাযোগে পিকনিকে যাওয়ার সময় জেনারেটরের পাখায় ওড়না পেচিয়ে মারিয়া আক্তার নামে এক ছাত্রীর মৃত্যু হয়েছে বলে নিশ্চিত করেন।



সাতদিনের সেরা