kalerkantho

শুক্রবার । ৯ আশ্বিন ১৪২৮। ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১৬ সফর ১৪৪৩

‘রুটিপড়া’ খাওয়া নিয়ে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ, আহত ১০

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি   

৮ আগস্ট, ২০২১ ২১:১৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



‘রুটিপড়া’ খাওয়া নিয়ে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ, আহত ১০

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে চুরি হওয়া মোবাইল ফোন উদ্ধার করতে কবিরাজের দেওয়া রুটিপড়া খাওয়াকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। সংঘর্ষে উভয় পক্ষের বৃদ্ধ ও নারীসহ অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন। এ সময় এক প্রবাসীর বসতবাড়িতে হামলা ও ভাঙচুরের অভিযোগ পাওয়া গেছে। রবিবার দুপুরে উপজেলার ভোলাব ইউনিয়নের গুতুলিয়া এলাকায় ঘটে এ ঘটনা।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয়রা জানান, গুতুলিয়া এলাকার আলাউদ্দিনের ছেলে আব্দুর রহিমের একটি মোবাইল ফোন চুরি বা হারিয়ে যায়। মোবাইলটি উদ্ধার হওয়ার লক্ষ্যে আব্দুর রহিম বন্দর উপজেলার মদনপুর ইস্পাহানি এলাকার এক কবিরাজের কাছ থেকে রুটিপড়া নিয়ে আসে। আর এ রুটিপড়া আলী হোসেনের ছেলে জজ মিয়াসহ তাদের পরিবারের সদস্যদের জোর করে খাওয়ানো শুরু করে। এক পর্যায়ে জজ মিয়ার পরিবারের সদস্য প্রবাসী ফারুক মিয়াকে একটি রুটির স্থলে পাঁচটি রুটি খেতে দেয়। রুটি খেতে অস্বীকৃতি জানালে প্রতিপক্ষ আব্দুর রহিমসহ তার লোকজন প্রবাসি ফারুককে এলোপাতাড়ি পেটাতে থাকে।

প্রবাসী ফারুককে বাঁচাতে পরিবারের লোকজন এগিয়ে এলে প্রতিপক্ষ আব্দুর রহিম, মাসুম, সুমন, ওসমান, শামিম, আজিজুল, শহিদুল, সাত্তার সীমান্তর, আলাউদ্দিন, বিল্লালসহ ২৫ থেকে ৩০ জন ধারালো ও দেশীয় অস্ত্র নিয়ে তাদের ওপর হামলা চালায়। এ সময় তার বসতঘরেও ভাঙচুর চালায় তারা।

রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ এফ এম সায়েদ বলেন, এ ধরনের ঘটনা আমার জানা নেই। এ ছাড়া এ ধরনের ঘটনার ব্যাপারে এখন পর্যন্ত কেউ অভিযোগ দেয়নি। তারপরও ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে তদন্তসাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।



সাতদিনের সেরা