kalerkantho

রবিবার । ৪ আশ্বিন ১৪২৮। ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১১ সফর ১৪৪৩

৫ মাস পর করোনায় মৃত্যুহীন একটি দিন পেল সাতক্ষীরা

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি   

৮ আগস্ট, ২০২১ ২০:২৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



৫ মাস পর করোনায় মৃত্যুহীন একটি দিন পেল সাতক্ষীরা

গত ৫ মাসের মধ্যে এই প্রথম সাতক্ষীরায় করোনা আক্রান্ত হয়ে কোনো রোগী মারা যায়নি। তবে উপসর্গ নিয়ে একজনের মৃত্যু হয়েছে। এ ছাড়া কমেছে করোনা সংক্রমণের হারও। গত ২৪ ঘণ্টায় জেলায় করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু না হওয়ায় স্বস্তিতে জেলাবাসী।

উপসর্গে মারা যাওয়া হাসিনা খাতুন (৫৫) শারীরিক নানা জটিলতাও ভুগছিলেন। সাতক্ষীরা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। তিনি দেবহাটা উপজেলার সখিপুর গ্রামের নুরুল ইসলামের স্ত্রী।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা যায়, জ্বর, সর্দি, কাশি ও শ্বাসকষ্টসহ করোনার নানা উপসর্গ নিয়ে এক সপ্তাহ পূর্বে হাসিনা খাতুন মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ভর্তি হন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার দিবাগত রাতে তার মৃত্যু হয়। 

জেলায় এ পর্যন্ত করোনায় মৃত্যু ৮৫ জন এবং উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন ৫৭৩ জন। গত
২৪ ঘণ্টায় ৩৭৯টি নমুনা পরীক্ষায় ৬৬ জনের করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ১৭ দশমিক ৪১ শতাংশ। আগের দিন শনিবার শনাক্তের হার ছিল ২১ শতাংশ।

সাতক্ষীরা সিভিল সার্জন অফিসের করোনা বিষয়ক তথ্য কর্মকর্তা ডা. জয়ন্ত কুমার সরকার বলেন, এ পর্যন্ত সাতক্ষীরায় মোট করোনা রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬ হাজার ৩৭ জন। নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ২৪ হাজার ১৬২ জনের। এ ছাড়া এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন মোট ৪ হাজার ৮৮৫ জন। বর্তমানে করোনা রোগী রয়েছেন এক হাজার ৬৭ জন। হাসপাতালে ভর্তি করোনা রোগীর সংখ্যা ৩৫ জন। এদের মধ্যে সামেক হাসপাতালে ৩০ জন ভর্তি রয়েছেন। হোম আইসোলেশনে আছেন এক হাজার ১০৪ জন।

সাতক্ষীরার সিভিল সার্জন ডা. হুসাইন শাফায়াত জানান, জেলায় করোনা উপসর্গ ও আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর সংখ্যা অনেক কমেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় উপসর্গে মারা গেছেন একজন। এ অবস্থা ধরে রাখতে ভিড় এড়িয়ে মানুষে মানুষে দূরত্ব বজায় রাখতে হবে। মাস্ক পরতে হবে, নিজ নিজ এলাকা থেকে টিকা গ্রহণ করতে হবে।



সাতদিনের সেরা