kalerkantho

রবিবার । ৪ আশ্বিন ১৪২৮। ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১১ সফর ১৪৪৩

সালিসের পর স্বামীর ঘরে ফিরলেন খাদিজা, আড়ায় মিলল ঝুলন্ত লাশ

পূর্বধলা (নেত্রকোণা) প্রতিনিধি    

৮ আগস্ট, ২০২১ ১৬:২৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সালিসের পর স্বামীর ঘরে ফিরলেন খাদিজা, আড়ায় মিলল ঝুলন্ত লাশ

নেত্রকোনার পূর্বধলা উপজেলায় গলায় ফাঁস দিয়ে গতকাল শনিবার বিকেলে খাদিজা আক্তার (২০) নামের এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছেন। তিনি উপজেলার আগিয়া ইউনিয়নের বুধি মধ্যপাড়া গ্রামের হেলাল মিয়ার স্ত্রী। দাম্পত্য কলহের জেরে এ ঘটনা ঘটেছে বলে দাবি করছে নিহতের পরিবার। 

এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, একবছর আগে উপজেলার আগিয়া ইউনিয়নের বুধি মধ্যপাড়া গ্রামের আব্দুল আজিজের ছেলে হেলাল মিয়ার সঙ্গে পার্শ্ববর্তী বেড়াইল গ্রামের জবান আলীর মেয়ে খাদিজা আক্তারের বিয়ে হয়। বিয়ের কিছুদিন পর থেকেই তাদের মধ্যে কলহ শুরু হয়। এর জেরে এক সপ্তাহ আগে খাদিজা তার বাবার বাড়িতে অবস্থান করছিলেন।

স্থানীয়দের মধ্যস্থতায় গ্রাম্য সালিসের মাধ্যমে গত শনিবার তিনি স্বামীর বাড়িতে আসেন। পরে বিকেলে তিনি নিজ ঘরের আড়ায় গলায় ওড়না দিয়ে ফাঁসিতে ঝোলেন। এ সময় বাড়ির লোকজন টের পেয়ে তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। 

পূর্বধলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মদ শিবিরুল ইসলাম বলেন, পারিবারিক কলহের জেরে এ ঘটনা ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে। তবে পরিবারের পক্ষ থেকে এখনও কোনো মামলা হয়নি। আজ রবিবার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। 



সাতদিনের সেরা