kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ আশ্বিন ১৪২৮। ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১৩ সফর ১৪৪৩

কারখানায় ‘নামাজ পড়া, পাঞ্জাবি-টুপি পরা মানা’: বিক্ষোভে প্রত্যাহার

নিজস্ব প্রতিবেদক, গাজীপুর   

৫ আগস্ট, ২০২১ ২১:১২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কারখানায় ‘নামাজ পড়া, পাঞ্জাবি-টুপি পরা মানা’: বিক্ষোভে প্রত্যাহার

ব্যাপক শ্রমিক বিক্ষোভের পর অবশেষে 'কারখানায় নামাজ আদায় ও পাঞ্জাবি-টুপি পরা যাবে না' নির্দেশ প্রত্যাহার করেছে টঙ্গীর দরাইল এলাকার এস অ্যান্ড পি বাংলা লিমিটেড কর্তৃপক্ষ। তারা ওই নোটিশের জন্য ক্ষমাও চেয়েছে।

জানা গেছে, ৩ আগস্ট কারখানার ব্যবস্থাপনা পরিচালক এক নোটিশে উল্লেখ করেন, 'কারখানার অভ্যন্তরে নামাজ পড়া যাবে না এবং পাঞ্জাবি ও টুপিও পরা যাবে না। এই আদেশ মেনে চলার ব্যাপারে বিশেষ নির্দেশনা দেয়া হল।'

এ নোটিশ দেখে শ্রমিক-কর্মচারীদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নোটিশের ছবি ছড়িয়ে পড়লে ক্ষোভ আরো দানা বাঁধে। বৃহস্পতিবার সকালে কাজ বন্ধ রেখে বিক্ষোভ ব্যাপক আকারে ছড়িয়ে পড়লে কারাখানায় পুলিশ যায়। বেলা ১২টা দিকে কর্তৃপক্ষ আগের নোটিশ প্রত্যার করে 'অনিচ্ছাকৃত ভুল সিদ্ধান্ত ছিল এবং ওই নোটিশের জন্য দুঃখ প্রকাশ ও ক্ষমা প্রার্থনা করে।'

কারখানার জিএম মাহবুব আলম দাবি করেন, ‘কারখানায় কোনো বিক্ষোভ হয়নি। দ্বিতীয় নোটিশে আগের নোটিশ প্রত্যাহার করা হয়েছে। নোটিশের বিষয়টি জানতে বৃহস্পতিবার পুলিশ সদস্যরা কারখানায় আসে। ঘটনার শান্তিপূর্ণ সমাধান হয়েছে।

গাজীপুর শিল্প পুলিশের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার এস আলম জানান, গত ৩ আগস্টের ওই নোটিশ  কারখানায় ব্যাপক ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছিল। শ্রমিকরা ক্ষিপ্ত হয়ে বৃহস্পতিবার সকালে ওই আদেশ প্রত্যাহারের দাবি জানিয়ে বিক্ষোভ করেন। কর্তৃপক্ষ নোটিশ প্রত্যারের পর পরিস্থিতি শান্ত হয় এবং শ্রমিকরা কাজে যোগ দেয়।



সাতদিনের সেরা