kalerkantho

সোমবার । ৫ আশ্বিন ১৪২৮। ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১২ সফর ১৪৪৩

গাছ কাটতে বাধা দেওয়ায় বৃদ্ধাকে মারধর

কোটালীপাড়া (গোপালগঞ্জ) প্রতিনিধি   

৫ আগস্ট, ২০২১ ২০:১০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গাছ কাটতে বাধা দেওয়ায় বৃদ্ধাকে মারধর

গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া উপজেলায় লক্ষ্মী রাণী বাড়ৈ নামে স্বামী-সন্তানহারা ৭০ বছরের এক বৃদ্ধাকে অমানবিক নির্যাতন করা হয়েছে। লক্ষ্মী রাণী বাড়ৈ বর্তমানে উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে চিকিৎসাধীন। গতকাল বুধবার উপজেলার সাদুল্লাপুর ইউনিয়নের পলোটানা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় লক্ষ্মী রাণী বাড়ৈর দেবর সদানন্দ বাড়ৈ বাদী হয়ে কোটালীপাড়া থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। তিনি পলোটানা গ্রামের মৃত নিত্যানন্দ বাড়ৈর স্ত্রী।

উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি বলেন, আমাদের বাড়ির নগেন্দ্রনাথ বাড়ৈর ছেলে চিন্ময় বাড়ৈ বুধবার আমার রোপণকৃত একটি আম গাছ কেটে ফেলে। আমি বাধা দিতে গেলে আমাকে বেদম মারধর করে। এ ছাড়া এই মারধরের ঘটনায় আমি বা আমার পক্ষ থেকে কেউ মামলা করলে আমাকে মেরে ফেলা হবে বলে হুমকি দেয়।

লক্ষ্মী রাণীর দেবরের ছেলে ছাত্রলীগ নেতা সম্রাট বাড়ৈ বলেন, আমার জেঠা বেঁচে নেই। তার কোনো সন্তানও নেই। এর আগেও চিন্ময় আমার জেঠিমাকে তিনবার মারধর করেছে। আমরা প্রতিবাদ করতে গেলে সে আমাদেরও জীবননাশের হুমকি দেয়। আমরা এর সুষ্ঠু বিচার চাই।

অভিযুক্ত চিন্ময় বাড়ৈর কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, তিনি উঠানে পড়ে গিয়ে ব্যথা পেয়েছেন। আমি তাকে মারধর করিনি।

কোটালীপাড়া থানার ওসি মো. আমিনুল ইসলাম বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।



সাতদিনের সেরা