kalerkantho

শনিবার । ১০ আশ্বিন ১৪২৮। ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১৭ সফর ১৪৪৩

সোনাতলায় রাতে ঘরে ঢুকে যুবকের রগ কেটে দিল দুর্বৃত্তরা

নিজস্ব প্রতিবেদক, বগুড়া   

২ আগস্ট, ২০২১ ২২:৫৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সোনাতলায় রাতে ঘরে ঢুকে যুবকের রগ কেটে দিল দুর্বৃত্তরা

রবিবার দিবাগত রাত ৩টায় বগুড়ায় সোনাতলার মধুপুর ইউনিয়নের ফুলবাড়ীয়া গ্রামে পলাশ মিয়া (২৮) নামে এক যুবকের ঘরে ঢুকে পায়ের রগ কেটে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। পলাশ ফুলবাড়ীয়া গ্রামের মৃত শাহিদুল ইসলামের ছেলে। বর্তমানে সে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

গুরুতর আহত পলাশের ভাই রবিন জানান, রবিবার রাতে প্রতিদিনের মতো নিজ শয়নঘরে ঘুমাতে যায় ভাই পলাশ। রাত ৩টার দিকে ঘরের সিঁদ কেটে ভেতরে প্রবেশ করে কয়েকজন দুর্বৃত্ত। ঘুমন্ত অবস্থায় তারা ধারাল অস্ত্র দিয়ে পলাশের বাম পায়ের গোড়ালীর ওপরের রগ কেটে দেয়। অন্ধকারে ধস্তাধস্তির এক পর্যায়ে পালিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা।

এ সময় পলাশের চিৎকারে এগিয়ে আসে পরিবারের লোকজনসহ আশপাশের লোকজন। পরে তাকে চিকিৎসার জন্য প্রথমে সোনাতলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। মুমূর্ষু হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন।

সোমবার সকালে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন সোনাতলা-শিবগঞ্জ সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার তানভির ইসলাম, সোনাতলা থানার অফিসার ইনচার্জ রেজাউল করিম রেজা, ইন্সপেক্টর (তদন্ত) কামাল হোসেন।

সোনাতলা থানার অফিসার ইনচার্জ রেজাউল করিম জানান রগ কর্তনের ঘটনা শুনে সোনাতলা-শিবগঞ্জ সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপারসহ আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করি। বিষয়টি তদন্তের পর্যায়ে রয়েছে। এ ঘটনায় সোনাতলা থানায় একটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।



সাতদিনের সেরা