kalerkantho

শুক্রবার । ৬ কার্তিক ১৪২৮। ২২ অক্টোবর ২০২১। ১৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

মা নিখোঁজ, ১৪ ঘণ্টা বাইসাইকেল চালিয়ে বাড়ি ফিরল ছেলে

কমলগঞ্জ প্রতিনিধি   

২ আগস্ট, ২০২১ ২০:১৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মা নিখোঁজ, ১৪ ঘণ্টা বাইসাইকেল চালিয়ে বাড়ি ফিরল ছেলে

মায়ের প্রতি সন্তানের ভালোবাসার প্রমাণ দিলেন সোহেল আহমদ (২৮)। ঢাকায় একটি পাসের্ল অফিসে চাকরি করেন। মায়ের নিখোঁজ সংবাদ জেনে বসে থাকতে পারলেন না। কঠোর লকডাউনে যানবাহন বন্ধ, কিভাবে বাড়ি ফিরবেন তা ভেবে পাচ্ছিলেন না। অবশেষে যাত্রা শুরু করলেন বাইসাইকেল নিয়ে। কমর্স্থল ঢাকা থেকে শনিবার রাতে শুরু হয় তার যাত্রা। প্রায় ২৩০ কিলোমিটার সড়ক পথে বাইসাইকেল চালিয়ে বিরামহীন ১৪ ঘণ্টায় পথ পাড়ি দিয়ে রবিবার দুপুরে পৌঁছেন মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার মাধবপুর ইউনিয়নের লঙ্গুরপার গ্রামে।

জানা যায়, উপজেলার মাধবপুর ইউনিয়নের লংগুরপাড় গ্রামের মানিক মিয়ার স্ত্রী ও মাধবপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি মো. আসিদ আলির ছোট বোন হাজেরা বিবি (৪৮)। গত বুধবার রাতে একই গ্রামে অবস্থিত বড় ভাই আসিদ আলির বাড়ি থেকে রাতের খাবার খেয়ে হাজেরা বিবি প্রতিবেশী রকিব মিয়ার বাড়িতে রাত্রিযাপন করেন। বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) ভোরে ঘুম থেকে উঠে রকিব মিয়ার স্ত্রীকে চা বানানো কথা বলে ঘর থেকে বেড়িয়ে যান। তারপর থেকে তার কোনো সন্ধান পাচ্ছে না পরিবার। 

এদিকে, ঘটনাটি তার ছেলে সোহেল আহমদকে মুঠোফোনে জানান মামা আসীদ আলী। খবর শুনে শনিবার রাতে বাইসাইকেল চালিয়ে ঢাকা থেকে রওয়ানা দিয়ে বিরামহীন ১৪ ঘণ্টা পর কমলগঞ্জের লংগুরপাড়স্থ গ্রামের বাড়িতে রবিবার দুপুরে ফিরেন। ফিরেই মার সন্ধানে লোকজন নিয়ে সারাদিন বাড়ির আশপাশের প্রায় ৫ কিমি. এলাকার ঝোঁপঝাড়, খাল, ডোবা, পুকুর, সব আত্মীয় স্বজনের বাড়িতে খোঁজ করেন। কিন্তু খোঁজ মা হাজেরা বিবির কোনো সন্ধান পাননি তিনি। 

সোহেল আহমদ কান্নাজড়িত কণ্ঠে বলেন, ‘মা আমাকে খুবই আদার করতেন। মা নিখোঁজ খবরে বসে থাকতে পারিনি। তাই বাড়িতে ফিরেছি সাইকেল চালিয়ে।’ মাকে যেন সুস্থ্য অবস্থায় পান সেজন্য সকলের কাছে দোয়া চান। এ ব্যাপারে থানায় একটি সাধারণ ডায়রি করা হয়েছে বলে জানান তিনি।



সাতদিনের সেরা