kalerkantho

শুক্রবার । ২ আশ্বিন ১৪২৮। ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১। ৯ সফর ১৪৪৩

হাতীবান্ধায় বীর মুক্তিযোদ্ধার জমি দখল!

হাতীবান্ধা (লালমনিরহাট) প্রতিনিধি   

২ আগস্ট, ২০২১ ১৬:৫৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



হাতীবান্ধায় বীর মুক্তিযোদ্ধার জমি দখল!

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় আদালতের আদেশ অমান্য করে অমূল্য কুমার রায় (৭৫) নামের এক বীর মুক্তিযোদ্ধার জমি জোর করে দখলের অভিযোগ পাওয়া গেছে তরণী মোহন রায় গংদের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় গত রবিবার (১ আগস্ট) রাতে ভুক্তভোগী বীর মুক্তিযোদ্ধা বাদী হয়ে তরণী মোহন রায়কে প্রধান আসামি করে আরো সাতজনের নাম উল্লেখ করে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেন। এর আগে গত ৩১ জুলাই সকালে উপজেলার মধ্য গড্ডিমারী এলাকায় জমি দখলের ঘটনাটি ঘটে। 

জমি দখলের অভিযোগে অভিযুক্তরা হলেন উপজেলার মধ্য গড্ডিমারী এলাকার মৃত ঝরেন্দ্রনাথের ছেলে তরণী মোহন রায় (৫৫), তার স্ত্রী বিমলা রানী (৪৫), ছেলে যোতিশ চন্দ্র রায় (২০), তরণীর মেয়ে তাপসী রানী রায় (২৫), মৃত বিদেশ্বরের ছেলে তারক (৬৫), তারকের স্ত্রী সুমতি বালা রায় (৫০) ও তারকের দুই ছেলে জোনাকু (৩৫) এবং সুবল চন্দ্র রায় (৩০)। 

ভুক্তভোগী বীর মুক্তিযোদ্ধা উপজেলার মধ্য গড্ডিমারী এলাকার মৃত খগেন্দ্র নাথের ছেলে অমূল্য কুমার রায়। জানা গেছে, বীর মুক্তিযোদ্ধা অমূল্য কুমার রায়ের পৈতৃক ও ভোগদখলীয় জমি নিয়ে অভিযুক্তদের সাথে বিবাদ সৃষ্টি হয়। এ ঘটনায় রীর মুক্তিযোদ্ধা অমূল্য বাদী হয়ে মামলা করলে (সিভিল রিভিশন মামলা নং-১২৯৫/২০১৫) আদালত তার পক্ষে রায় দেয়। এমতাবস্থায় গত ৩১ জুলাই সকালে অভিযুক্তরা আদালতের আদেশ অমান্য করে উক্ত জমি দখল করে নেয়।

অমূল্য কুমার রায় বলেন, 'তরণী মোহন ও তার লোকজন আদালতের আদেশ অমান্য করে আমার জমি দখল করেছে। আর তাই আমি থানায় লিখিত অভিযোগ করেছি। আমি এর সঠিক বিচার চাই।' এ বিষয়ে অভিযুক্ত তরণী মোহন রায় বলেন, 'আমরা কোনো জমি দখল করিনি। ওনারা যে অভিযোগ দিয়েছে তা মিথ্যা ও বানোয়াট।'

হাতীবান্ধা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এরশাদুল আলম বলেন, 'অভিযোগ পাওয়া গেছে। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।'



সাতদিনের সেরা