kalerkantho

সোমবার । ৫ আশ্বিন ১৪২৮। ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১২ সফর ১৪৪৩

ফুটবল খেলা নিয়ে দুই গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষ, আহত অর্ধশতাধিক

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি   

১ আগস্ট, ২০২১ ২০:৫১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ফুটবল খেলা নিয়ে দুই গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষ, আহত অর্ধশতাধিক

হবিগঞ্জের মাধবপুর ফুটবল খেলা নিয়ে দুই গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষে কমপক্ষে অর্ধশতাধিক লোক আহত হয়েছেন। আজ রবিবার বিকেলে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার আদাঐর ইউনিয়নের সম্বতপুর গ্রামের লোকজন একটি ফুটবল টুর্নামেন্টের আয়োজন করে। বিকেলে সম্বতপুর গ্রামের লোকজন বিলে খেলতে গেলে বহরা ইউনিয়নের সুন্দাদিল গ্রামের লোকজনও খেলতে আসে। এই নিয়ে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়।

এদিকে, শনিবার রাতে সম্বতপুর গ্রামের মন্নর আলী ও তার ভাতিজা গিয়াস উদ্দিন স্থানীয় দিঘিরপাড় বাজারে গেলে সুন্দাদিল গ্রামের লোকজন তাদের মারপিট করে। এর জের ধরে রবিবার সম্বতপুর ও সুন্দাদিল গ্রামের লোকজন সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে মাধবপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। 

সম্বতপুর গ্রামের আহত মন্নর আলী জানান, সম্বতপুর গ্রামের লোকজন ফুটবল টুর্নামেন্টের আয়োজন করে। শনিবার তারা ফুটবল খেলতে গেলে সুন্দাদিল গ্রামের লোকজনও আসে খেলতে। এ নিয়ে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। রবিবার বহরা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আরিফের কথামতো সুন্দাদিল গ্রামের লোকজন সংঘর্ষে জড়িত হয়। এতে আমরা আহত হয়েছি। 

বহরা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আরিফুর রহমান অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ফুটবল খেলা নিয়ে সংঘর্ষ হয়েছে। তিনি এবং আদাঐর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান গিয়ে দু’পক্ষকে শান্ত করেছেন।

আদাঐর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ফারুক পাঠান জানান, কয়েকজন বলেছে আরিফ চেয়ারম্যান ঘটনাস্থলে ছিল। মূলত ফুটবল খেলা নিয়ে সংঘর্ষ হয়েছে। পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করেছেন। এই ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। 

মাধবপুর থানার ওসি আব্দুর রাজ্জাক জানান, পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। অভিযোগ করলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।



সাতদিনের সেরা