kalerkantho

সোমবার  । ১২ আশ্বিন ১৪২৮। ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১৯ সফর ১৪৪৩

গ্রাহকের কোটি টাকা হাতিয়ে নেওয়া খায়রুল বাশার গ্রেপ্তার

নড়াইল প্রতিনিধি    

১ আগস্ট, ২০২১ ১৮:৪০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গ্রাহকের কোটি টাকা হাতিয়ে নেওয়া খায়রুল বাশার গ্রেপ্তার

গ্রাহকের জমা করা টাকা ও বিদ্যুৎ গ্রাহকদের বিলের প্রায় কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়ে লাপাত্তা হওয়া ব্যাংক এশিয়ার মোবাইল ব্যাংকিংয়ের নড়াইলের কালিয়া উপজেলার চাঁচুড়ী বাজার শাখার এজেন্ট মো. খায়রুল বাশারকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। আজ রবিবার ভোরে কালিয়া থানার একদল পুলিশ তাকে খুলনার একটি বাসা থেকে গ্রেপ্তার করে। খায়রুল বাশার উপজেলার চন্দ্রপুর গ্রামের মো. ইমাদুল খানের ছেলে। এর আগে ব্যাংক এশিয়া কর্তৃপক্ষ তার বিরুদ্ধে কালিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করে। 

পুলিশ জানায়, গত ২০২০ সালের জুন মাসে ব্যাংক এশিয়া মোবাইল ব্যাংকিং পরিচালনার জন্য কালিয়া উপজেলার চাচুড়ী বাজার শাখায় খায়রুল বাশারকে এজেন্ট নিয়োগ করে। সেই থেকে খায়রুল ওই ব্যাংকের সঞ্চয়ী হিসাব পরিচালনাকারি গ্রাহদের জমানত রাখতে থাকে। চলতি বছরের ফেব্রুয়ারী মাস থেকে ব্যাংকে বিদ্যুৎ বিলের টাকা জমা নেওয়া শুরু হয়। বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ  গ্রাহকদের নামে বকেয়া বিল করতে শুরু করলে প্রায় ২ হাজার গ্রাহকের ৩ মাসের বিল জমা না দিয়ে আত্নসাৎ ঘটনাটি জানাজানি হয়। 

এসময় গ্রাহকদের এককালীন এবং মেয়াদী জামানতের কোটি টাকা আত্নসাৎ এর ঘটনা বেরিয়ে আসলে খায়রুল বাশার লাপাত্তা হয়ে যান। ব্যাংক এশিয়ার নিরীক্ষার মাধ্যমে বেরিয়ে আসে,গ্রাহকের ৮৩ লাখ টাকা  রশিদের মাধ্যমে জমা নিয়ে ব্যাংকের হিসাবে জমা না করে খায়রুল বাশার আত্মসাত করেছেন।

ঘটনার সত্যতা পেয়ে এজেন্ট খায়রুল সহ অঞ্জাতনামা ৩/৪ জনকে আসামী ওই ব্যাংক এশিয়ার রিলেশনশিপ কর্মকর্তা মো. তুহিনুর রহমান বাদি হয়ে ২৮ জুলাই কালিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। কালিয়া থানার ওসি সেখ কনি মিয়া বলেন,ব্যাংক এশিয়ার করা মামলায় মূল আসামীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বাকি আসামীদেরও শনাক্তের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। 



সাতদিনের সেরা