kalerkantho

রবিবার । ১ কার্তিক ১৪২৮। ১৭ অক্টোবর ২০২১। ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

কিশোরী ভাতিজিকে ধর্ষণ, ৯৯৯-এ ফোন, আটক হলো অভিযুক্ত

হাজীগঞ্জ (চাঁদপুর) প্রতিনিধি   

১ আগস্ট, ২০২১ ১৩:৫৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কিশোরী ভাতিজিকে ধর্ষণ, ৯৯৯-এ ফোন, আটক হলো অভিযুক্ত

কিশোরী ভাতিজিকে (১৪) ধর্ষণের দায়ে চাচা আব্দুর রশিদকে (৩৫) গ্রেপ্তার করেছে চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ থানা পুলিশ। এর আগে জরুরি সেবা ৯৯৯-এ ফোন পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে। ঘটনাটি হাজীগঞ্জের ৬ নম্বর বড়কূল পূর্ব ইউনিয়নের মোল্লাডহর গ্রামের। আব্দুর রশিদ ওই গ্রামের নোয়াবাড়ির আব্দুস সোবাহানের ছেলে। আজ রবিবার কিশোরীর পরিবার আব্দুর রশিদকে একমাত্র আসামি করে নারী ও শিশু নির্যাতনের অভিযোগে মামলা দায়ের করে।

কিশোরীর মা জানান, আমরা নতুন বাড়িতে থাকি। চারদিকে থইথই পানি। তাই নৌকায় করে পাশের দোকানে সদাই আনতে যাই। এই সুযোগে মেয়েকে একা পেয়ে দেবর রশিদ সর্বনাশ করে। সদাই নিয়ে ঘরে ফিরলে মেয়ে আমাকে জড়িয়ে হাউমাউ করে কেঁদে উঠে সব ঘটনা খুলে বলে।

স্থানীয় ইসমাইল ও আলমগীর হোসেন বলেন, মেয়েটির পরিবারের কান্নাকাটি শুনে আমরা ঘটনাস্থলে যাই এবং ধর্ষককে আটক করি। তবে আমরা যাওয়ার আগে মেয়েটির বাবা ৯৯৯ নম্বরে ফোন দেয়। এরপর পুলিশ এলে আমরা ধর্ষককে পুলিশের হাতে তুলে দিই।

হাজীগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক জয়নাল আবেদীন বলেন, জরুরি সেবার ফোন পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে সত্যতা পাই।

হাজীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ হারুনুর রশিদ জানান, কিশোরীর পরিবারের লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে মেডিক্যাল চেকআপের জন্য চাঁদপুর সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে কিশোরীকে। আর আটক আব্দুর রশিদকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।



সাতদিনের সেরা