kalerkantho

সোমবার । ৫ আশ্বিন ১৪২৮। ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১২ সফর ১৪৪৩

বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পেল শিক্ষার্থী, দুই পরিবারের ২০ হাজার টাকা জরিমানা

জাজিরা (শরীয়তপুরের) প্রতিনিধি   

৩১ জুলাই, ২০২১ ১১:১৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পেল শিক্ষার্থী, দুই পরিবারের ২০ হাজার টাকা জরিমানা

দেশব্যাপী চলমান কঠোর লকডাউনের বিধি-নিষেধ উপেক্ষা করে শরীয়তপুর নড়িয়া উপজেলার বাল্য বিয়ের আয়োজন করায় বরের পরিবারকে ১০ হাজার ও কনের পরিবারকে ১০ হাজার টাকা করে মোট ২০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

নড়িয়া উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত অভিযান পরিচালনা করে এ দণ্ডাদেশ প্রদান করেন।

বিধি-নিষেধ উপেক্ষা করে শুক্রবার (৩০ জুলাই) রাতে বরের বাড়ি শরীয়তপুর নড়িয়া উপজেলার ঘড়িসার ইউনিয়নের বাড়ৈপারা গ্রামে বিয়ে সম্পন্ন করার খবর পায় উপজেলা প্রশাসন। রাতে বাড়ৈপাড়ায় বর রাছেল দেওয়ানের বাড়িতে ভ্রাম্যমাণ আদালত অভিযান পরিচালনা করেন। বরের বাড়িতেই শহীদ নজরুল বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থীকে পাওয়া যায়। 

উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কালের কণ্ঠকে জানান, ঘটনাস্থল গিয়ে বিয়ের কাগজপত্র দেখতে চাইলে তারা একটি নোটারি পাবলিকের কাগজ দেখান তারা। কিন্তু বয়স প্রমাণের সঠিক কোনো কাগজপত্র দেখাতে পারেননি। তাই বাল্যবিয়ে নিরোধ আইন ২০১৭ এর ৮ ধারা মতে আইন অমান্য করে বাল্যবিবাহ অনুষ্ঠান করায় ছেলের বাবা ও মেয়ের মা কে ১০ হাজার করে মোট ২০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড করা হয়।



সাতদিনের সেরা