kalerkantho

রবিবার । ৪ আশ্বিন ১৪২৮। ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১১ সফর ১৪৪৩

বাবা-মায়ের হাতে প্রতিবন্ধী কিশোরীকে তুলে দিলেন ইউএনও

চাঁদপুর প্রতিনিধি    

৩০ জুলাই, ২০২১ ২৩:৫৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বাবা-মায়ের হাতে প্রতিবন্ধী কিশোরীকে তুলে দিলেন ইউএনও

চাঁদপুরের মতলব উত্তরে ঘুরে বেড়ানো মানসিক প্রতিবন্ধী কিশোরী অবশেষে বাবা মায়ের কাছে ফিরে গেল। শুক্রবার বিকেলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা গাজী শরীফুল হাসান ও ষাটনল ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান এ কে এম শরীফউল্লাহ কিশোরী নূরজাহানকে তার বাবা মো. শাহজাহান ও মা হালিমা বেগমের হাতে তুলে দেন। 

এর আগে গত ২৩ জুলাই ষাটনল লঞ্চঘাট ও তার আশপাশে ঘোরাঘুরি করার সময় স্থানীয়দের চোখে পড়ে ওই মানসিক প্রতিবন্ধী কিশোরী। পরে নির্বাহী কর্মকর্তা গাজী শরীফুল হাসানকে এমন ঘটনা জানানো হয়। এমন পরিস্থিতিতে কিশোরীর নিরাপত্তা এবং তাকে দেখাশোনার জন্য দায়িত্ব দেওয়া হয় সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানকে।

এসময় মানসিক প্রতিবন্ধী এই কিশোরী নিজের নাম ঠিকানা এবং পরিচয় কিছুই জানাতে চায়নি। কিন্তু হঠাৎ করে গতকাল বৃহস্পতিবার সে নিজ থেকেই বলতে শুরু করে তার নাম নূরজাহান। বাবা ও মায়ের নাম মো. শাহজাহান ও হালিমা বেগম। নারায়ণগঞ্জে চাষাড়ায় তাদের বাড়ি। এখন সে পরিবারের কাছে যেতে চায়।

এরপরই নারায়ণগঞ্জে তার পরিবারের কাছে খবর জানানো হয়। আজ শুক্রবার বিকেলে কিশোরীর বাবা ও মা মতলব উত্তরে এসে তাদের মেয়েকে নিয়ে যান।

কিশোরীর বাবা জানান, তার মেয়ে মানসিক প্রতিবন্ধী হওয়ায় মাঝেম ধ্যে বাড়ি থেকে হাওয়া হয়ে যায়। কিন্তু এই প্রথম ভালো মানুষের হাতে পড়ায় তার মেয়েকে খুঁজে পেলেন। 

মতলব উত্তর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা গাজী শরীফুল হাসান জানান, মেয়েটিকে যখন চেয়ারম্যান সাহেবের জিম্মায় দেওয়া হয়। তখন থেকেই ভাবনা ছিল। তার কোনো উপযুক্ত অভিভাবক না পেলে পাবনা মানসিক হাসপাতালে ভর্তি করার ব্যবস্থা করবেন। এর মধ্যে প্রাথমিকভাবে সেখানে আলাপ করে রেখেছিলেন বলে জানান তিনি। কিন্তু এখন অভিভাবক খুঁজে পাওয়ায় ভালোই হলো। তবে কিশোরীর বাবা ও মা যদি তাদের মেয়ের চিকিৎসা দিয়ে সুস্থ করতে চান। তাহলে তাদের পাশে দাঁড়ানোর প্রতিশ্রুতি দেন তিনি। 



সাতদিনের সেরা