kalerkantho

শুক্রবার । ৯ আশ্বিন ১৪২৮। ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১৬ সফর ১৪৪৩

গলাচিপার আলোচিত রুহুল হত্যা : ৩৩ দিন পর আসামিরা ধরা

গলাচিপা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি   

২৯ জুলাই, ২০২১ ১৭:১৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গলাচিপার আলোচিত রুহুল হত্যা : ৩৩ দিন পর আসামিরা ধরা

জমিজমার বিরোধকে কেন্দ্র করে পটুয়াখালীর গলাচিপার আলোচিত রুহুল আমিন ধলাই হত্যার প্রধান দুই আসামি বাবা-ছেলেকে ৩৩ দিন পর গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এরা হলেন মিরাজ মীর (২৫) ও জসিম মীর (৫০)। এর মধ্যে মিরাজকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া ও জসিমকে ফেনী থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

গ্রেপ্তারকৃতদের বৃহস্পতিবার গলাচিপা সিনিয়র জুডিসিয়ার ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করলে আদালত তাদের পটুয়াখালী জেলা কারাগারে প্রেরণ করেন। তবে এ হত্যাকাণ্ডের অধিকতর তদন্তের জন্য আসামিদের রিমান্ড চাওয়ার প্রক্রিয়া চলছে বলে তদন্তকারী কর্মকর্তা মো. আতিকুল ইসলাম জানান।

গলাচিপা থানার ওসি এম আর শওকত আনোয়ার ইসলাম জানান, উপজেলার ডাকুয়া ইনিয়ানের ব্রিজবাজার এলাকায় গত ২৫ জুন গ্রাম্য সালিশের পর জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে ব্রিজ বাজারে নিজের চায়ের দোকানের মধ্যে নির্মমভাবে হত্যা করা হয় রুহুলকে। এ হত্যাকাণ্ডের প্রধান দুই আসামি মিরাজ মীর ও জসিম মীর দীর্ঘদিন পলাতাক ছিলেন। প্রযুক্তি ব্যবহার করে তাদের অবস্থান নিশ্চিত হয়ে বুধার তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

এ ঘটনায় নিহত রুহুল আমিন মীরের স্ত্রী নাজমুন নাহার বাদী হয়ে গত ২৬ জুন মিরাজ মীর ও তার বাবা জসিম মীরকে প্রধান আসামি করে ২৬ জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাত ২৬ জনসহ মোট ৫২ জনের নামে গলাচিপা থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। আসামি জসিম বাদী নাজমুন নাহারের সম্পর্কে চাচাতো ভাসুর হন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা গলাচিপা থানার ওসি (তদন্ত) মো. আতিকুল ইসলাম জানান, আলোচিত রুহুল হত্যাকাণ্ডের প্রধান দুই আসামিকে আমরা প্রযুক্তি ব্যবহার করে গ্রেপ্তার করেছি।

গলাচিপা থানার ওসি এম আর শওকত আনোয়ার ইসলাম বলেন, রুহুল হত্যার প্রধান দুই আসামিসহ মোট ৮ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বাকিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।



সাতদিনের সেরা