kalerkantho

বুধবার । ১৪ আশ্বিন ১৪২৮। ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১। ২১ সফর ১৪৪৩

প্রবাসীর স্ত্রীর ঘর থেকে আটক, পরে ধর্ষণ মামলা

আদমদীঘি (বগুড়া) প্রতিনিধি   

২৮ জুলাই, ২০২১ ২০:২২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



প্রবাসীর স্ত্রীর ঘর থেকে আটক, পরে ধর্ষণ মামলা

বগুড়ার আদমদীঘিতে বিয়ের প্রলোভনে প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে মোতাহার হোসেন তোফা (৪৫) নামের এক ব্যক্তিকে আটক করেছে পুলিশ। আটককৃত তোফা উপজেলার ছোট ঝাখইর গ্রামের মোজাম্মেল হোসেনের ছেলে। বুধবার বিকেলে এরিপোর্ট লেখা পর্যন্ত আটককৃত ব্যক্তির বিরুদ্ধে প্রবাসীর স্ত্রী বাদী হয়ে মামলা দায়েরের প্রস্ততি নিচ্ছিলেন।

পুলিশ জানায়, উপজেলার ছোট ঝাঁখইর জিরাগাড়ী গ্রামের দুই সন্তানের জননী গৃহবধূর স্বামী দীর্ঘ ৬-৭ বছর ধরে কাতারে রয়েছেন। প্রবাসে থাকায় একই গ্রামের দুই সন্তানের জনক মোতাহার হোসেন তোফা ওই গৃহবধূর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে। এরপর বিয়ের প্রলোভন দিয়ে গৃহবধূকে দীর্ঘদিন যাবত ধর্ষণ করে আসছিলেন। একপর্যায়ে মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে গৃহবধূর ঘরে ঢুকে ধর্ষণ করেন। এ সময় স্থানীয়রা টের পেয়ে তাকে আটক করে।

পরে গ্রামের লোকজন ঘটনাটি ধাপাচাপা দেওয়ার জন্য রাতভর চেষ্টা চালিয়ে ব্যর্থ হয়। থানা পুলিশ বিষয়টি জানতে পেরে বুধবার দুপুরে ভিকটিমকে উদ্ধার এবং মোহাতারকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

আদমদীঘি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জালাল উদ্দীন বলেন, এ ঘটনায় প্রবাসীর স্ত্রী বাদী হয়ে ধষর্ণের অভিযোগে মামলা দায়েরের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন। মামলা দায়েরের পর তাকে জেল হাজতে পাঠানো হবে।



সাতদিনের সেরা